একটি কারণে রোজা রাখার ঘোষণা কলকাতার অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর

১১ এপ্রিল ভারতের লোকসভা নির্বাচন। আর সেই নির্বাচনে মুসলিম ভোটারদের দৃস্টি আকর্ষণ করতে বেশ ভালোই পন্থা অবলম্বন করেছে অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। রোজার সময় ভোট হওয়ার কারণে মুসলিম ভোটারদের কষ্ট ভাগ করে নিতে রোজা রাখার ঘোষণা দিয়েছেন মিমি।

ভোট রমজান মাসে হওয়ায় এটা নিয়ে আপত্তি করেছিল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছিলেন, সংখ্যালঘু ভোটারদের অসুবিধার কথা মাথায় রেখে কমিশনের উচিত ছিল রমজান মাসে ভোট না করা।

সমালোচনা করেছিলেন কলকাতার মেয়রও। তিনি বলেছেন, ইচ্ছা করেই মুসলিমদের অসুবিধা করতেই রমজানের মধ্যেই ভোটের আয়োজন করা হয়েছে।

মুসলিম অধ্যুষিত বারুইপুরের কোয়াতলায় গিয়ে রমজানে রোজা রাখার কথা ঘোষণা করেন মিমি। কোয়াতলায় একটি অনুষ্ঠানে এই তারকা প্রার্থী বলেন, আগামী ১৯ মে ভোটের দিন। ওইদিন মুসলিমরা রোজা রাখবেন। আপনাদের কথা দিচ্ছি, ওইদিন আমিও রোজা রাখব। বিকেলে আপনাদের সঙ্গেই ইফতার করব। মিমির এই প্রতিশ্রুতির পরই হাততালিতে ফেটে পড়ে পুরো মঞ্চ।

বিরোধীরা অবশ্য অভিনেত্রীর এই মন্তব্য মুসলিমদের মন রক্ষার জন্য বলে অভিযোগ করেছেন। তারা বলছেন, ভোটের আগে মুসলিমদের মন রক্ষা করা তৃণমূলের পুরনো অভ্যাস। কিন্তু এবার এসবে কাজ হবে না।