এ মাসেই পাকিস্তানে ‘সামরিক হামলা’র পরিকল্পনা করছে ভারত: মাহমুদ কুরেশি

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত অধিকৃত কাশ্মিরে দেশটির কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের (সিপিআরএফ) গাড়িবহরে সন্ত্রাসী হামলায় ৪০ জনের বেশি জওয়ান নিহত হয়। এ ঘটনার পর পাকিস্তানকে দায়ী করে ২৬ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় বিমানবাহিনী পাকিস্তানে ঢুকে হামলা চালায়। কিন্তু একদিন পর পাকিস্তানের বালাকোট শহরের বাইরে ভারতীয় বিমানবাহিনী হামলা চালালে দুই দেশের মধ্যে সঙ্ঘাতে ঝুঁকি তৈরি হয়।

এরপর পাক-ভারত আকাশযুদ্ধে ভারতীয় যুদ্ধবিমানের এক পাইলটকে আটক করে পাকিস্তান। তবে শান্তির নিদর্শন হিসেবে তাকে ফেরত দেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

এদিকে, পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি বলেছেন, এ মাসেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ‘সামরিক হামলা’ চালানোর পরিকল্পনা করছে ভারত। দেশটিতে এ সপ্তাহেই শুরু হচ্ছে লোকসভা নির্বাচন।

রবিবার (৭ এপ্রিল) মুলতানে এক সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

তিনি বলেন, পাকিস্তানে নতুন করে (হামলা) পরিকল্পনা করছে ভারত এ বিষয়ে তার সরকারের হাতে নির্ভরযোগ্য গোয়েন্দা তথ্য আছে।

মাহমুদ কুরেশি বলেন, আমি দায়িত্ব নিয়ে কথা বলছি। দায়িত্বশীলতার একটি পদে আছি আমি। আমি জানি, যে কথাই বলব, আন্তর্জাতিক মিডিয়া তা-ই লুফে নেবে। তিনি আরো বলেন, প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। পাকিস্তানে আরেকবার হামলার আশঙ্কা আছে।

তিনি জানান, ১৬ থেকে ২০ এপ্রিলের মধ্যে এমন হামলা চালাতে পারে ভারত। এ জন্য কাশ্মিরের পুলওয়ামার মতো ঘটনা সাজানো হতে পারে নতুন করে। আর তার ওপর ভিত্তি করে তারা পাকিস্তানের ওপর আক্রমণ চালাতে পারে। ইসলামাবাদের ওপর কূটনৈতিক চাপ বাড়াতে পারে।

কুরেশি বলেন, যদি এমন হামলা হয়, আপনারা এর পরিণতি সম্পর্কে কল্পনা করতে পারেন। এতে আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা নষ্ট হবে। তিনি আরো বলেন, পাকিস্তান এরই মধ্যে এ বিষয়গুলোতে জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী পাঁচ সদস্যকে অবহিত করেছে।