কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় এসআইয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু

আজ শুক্রবার সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বন্দর মালিবাগ এলাকায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় পুলিশের এক এসআই নিহত হয়েছেন। নিহত ফরিদ আহাম্মেদ (৩৮) কাঁচপুর হাইওয়ে থানায় কর্মরত ছিলেন।

এদিকে নিহত এসআই ফরিদ আহম্মেদের বাড়ি হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট থানার ঘেরারু এলাকায়। তার বাবার নাম মানিক জমাদ্দার। আজ শুক্রবার ভোরে এ দুর্ঘটনায় পর ঘাতক কাভার্ডভ্যানটি আটক করলেও চালক পালিয়ে গেছেন।

এ ব্যাপারে পুলিশ জানায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সোনারগাঁওয়ে বুধবার দিনগত রাত থেকে পিকআপভ্যানে দায়িত্ব পালন করছিলেন এসআই ফরিদ।

এদিকে আজ শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে মহাসড়কের লাঙ্গলবন্দ এলাকায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অষ্টমী স্নান উৎসব উপলক্ষে যানজটের সৃষ্টি হয়।

এ সময় বন্দরের মালিবাগ ক্যাসেল এলাকায় যানজটে আটকে যাওয়া এক ট্রাকের চালক গাড়িতেই ঘুমিয়ে পড়েন। এতে যানজট আরও তীব্র আকার ধারণ করতে থাকে।

এরপর যানজট নিরসনে ফরিদ আহাম্মেদ পায়ে হেঁটে রাস্তা পার হয়ে ঘুমিয়ে পড়া ওই ট্রাকচালককে ডেকে তুলেন ও গাড়ি চালানোর জন্য অনুরোধ করেন।

এক পর্যায়ে ওই ট্রাকচালক গাড়ি চালানো শুরু করলে পেছন থেকে একটি কাভার্ডভ্যান (এমকে এন্টারপ্রাইজ, ঢাকা মেট্টো-ট-১৮-৭০৪০) এসআই ফরিদ আহম্মেদকে চাপা দেয়। এ সময় ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয় এসআই ফরিদ আহম্মেদের।