কাশ্মীরে তিন মাসে ভারতীয় ৮৩ সেনা নিহত

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতের একটি আধাসামরিক বাহিনীর ওপর এক কাশ্মীরি তরুণের আত্মঘাতী হামলায় ৪৮ জওয়ান নিহত হয়েছেন। এছাড়াও সাত জওয়ান আত্মহত্যা এবং অন্তঃকোন্দলে আরও তিনজন নিহত হন। এ নিয়ে কাশ্মীরে চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে ভারতীয় সেনাবাহিনীর ৮৩ জওয়ান নিহত হয়েছেন।

হিমালয় অঞ্চলটিতে গত তিন দশকের সশস্ত্র বিদ্রোহে এই প্রথম বিচ্ছিন্নতাবাদীদের চেয়ে সেনা সদস্যদের প্রাণক্ষয় বেশি হয়েছে। কাশ্মীরে সহিংসতায় সবমিলিয়ে তিন মাসে ১৬২ জন নিহত হয়েছেন। একটি মানবাধিকার প্রতিবেদনের বরাতে বার্তা সংস্থা আনাদোলু এ তথ্য জানায়।

বিষয়টি নিয়ে কোয়ালিশন অব সিভিল সোসাইটি নামের ওই সংস্থাটি বলছে, নিহতদের মধ্যে ভারতীয় সেনাবাহিনীর ৮৩ জওয়ান, বিদ্রোহী ৫৮ ও ২১ বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন। গত বছরের প্রথম তিন মাসের সংখ্যার চেয়ে অনেক বেশি। ওই সময়ে ১১৯জন নিহত হয়েছিলেন।

কাশ্মীর অঞ্চলটিকে নিজেদের বলে দাবি করছে পরমাণু শক্তিধর ভারত-পাকিস্তান দুই দেশই। আর ছোট একটি অংশ অবশ্য চীনেরও দখলে। ১৯৪৭ সালের দেশভাগের পর এ পর্যন্ত তিনটি যুদ্ধের মুখোমুখি হয় ভারত ও পাকিস্তান। এর মধ্যে ১৯৪৮ ও ১৯৬৫ সালের যুদ্ধ ছিল কাশ্মীর নিয়ে।

আর ১৯৮৪ সাল থেকেই সিয়াচেন হিমবাহে ভারত-পাকিস্তানের সেনাবাহিনী থেমে থেমে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। ১৯৮৯ সাল থেকে এ পর্যন্ত ব্যাপক সংখ্যক কাশ্মীরি ভারতীয় সেনাবাহিনীর হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন।