গেইল-ভিলিয়ার্সের রেকর্ডে ভাগ বসালেন সৌম্য সরকার

বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে লিষ্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন সৌম্য সরকার। শুধু লিষ্ট ‘এ’ নয়, বাংলাদেশের ইতিহাসে ৫০ ওভারের ক্রিকেটে কোন বাংলাদেশি হিসেবে এটাই প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি। সব রেকর্ড চুরমার করে দিয়েছেন সৌম্য সরকার। মহাগুরুত্বপূর্ন ম্যাচে এসে ইতিহাস গড়া এক ইনিংসই খেললেন তিনি।

আর তার ইতিহাস গড়া ইনিংসে ভর করে শিরোপা জিতে নিয়েছে সৌম্য সরকার। এই ডাবল সেঞ্চুরি করার পথে সৌম্য সরকার ছক্কা মারেন ১৬টি যা লিষ্ট এ ক্রিকেটে রেকর্ড। এক ম্যাচে কোন ব্যাটসম্যানই আর এত গুলো ছক্কা মারতে পারেনি বাংলাদেশের ঘরোয়া লিগে। নিজে অপরাজিত থাকেন ১৫৩ বলে ২০৮ রান করে।

লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে দুর্লভ এ অর্জনের দিন নিজের নামের পাশে আরও অসংখ্য রেকর্ড যুক্ত করেছেন তিনি। ক্রিকেট ইতিহাসের এক ইনিংসে তৃতীয় সর্বোচ্চ ছক্কা হাঁকানোর কীর্তি তিনি। যা লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের পক্ষে এটিই (১৬) সবচেয়ে বেশি ছক্কা হাঁকানোর রেকর্ড।

এদিকে, লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেট ইতিহাসে এটি তৃতীয় সর্বোচ্চের অর্জনে সৌম্য আজ ভাগ বসিয়েছেন রোহিত শর্মা, ক্রিস গেইল ও এবি ডি ভিলিয়ার্সের রেকর্ডে। ২০১৩ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এ কীর্তি গড়েছিলেন রোহিত। তার দু’বছর পরেই একই অর্জনের দেখা পান গেইলও। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকানোর পথে ১৬টি ছক্কা হাঁকান তিনি। আর একইবছর উইন্ডিজের বিপক্ষে এবি ডি ভিলিয়ার্সও পান একই স্বাদ।

তবে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটের এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি সংখ্যাক ছক্কা হাঁকানোর রেকর্ডটি অজি ক্রিকেটার ডি আর্চি শর্টের দখলে। তিনি ২০১৮ সালে কুইন্সল্যান্ডের বিপক্ষে ২৩টি ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন তিনি। তার পরের অবস্থানে রয়েছেন নামিবিয়ার ব্যাটসম্যান জ্যারি স্নাইম্যানের। তিনি ২০০৭ সালে আরব আমিরাতের বিপক্ষে এক ইনিংসে ১৭টি ছক্কা হাঁকানোর কীর্তি।

বাংলাদেশের লিস্ট ‘এ’ ইতিহাসে এতদিন এ রেকর্ডোটি ছিল মাশরফির। তিনি ২০১৬ সালে প্রথমবারের মতো ১১টি ছক্কা হাঁকিয়ে রেকর্ড গড়েন।