টাইব্রেকারে পিএসজিকে হারিয়ে শিরোপা রেনেসের

ইনজুরির পর ফ্রেঞ্চ কাপের ফাইনাল দিয়েই প্রথম একাদশে ফিরেছিলেন নেইমার। তবে তার সেই ফেরাটা রাঙানো হলোনা সতীর্থদের ব্যর্থতায়। নিজে উজ্জল থাকলেও ম্যাচ হেরেছে তার দল। সেই সাথে হারিয়েছে শিরোপা।

এদিন ফাইনালে নেইমারের পাস থেকে দানি আলভেসের গোলে এগিয়ে যায় পিএসজি। ম্যাচের ১৩ মিনিটে প্রথম গোলের পর ২১ মিনিটের মাথায় এবার স্কোরশিটে নাম লেখান নেইমার।

Advertisement

দুই গোলে পিছিয়ে পড়ার পর যেন ঘুম ভাঙে রেনেসের। তবে সেটাও প্রতিপক্ষের কল্যানেই। পিএসজি তারকা কিম্পেম্বের আত্মঘাতী গোলে ম্যাচের ৪০ মিনিটে ব্যবধান কমায় দলটি।

এরপর বিরতির পর ম্যাচের ৬৬ মিনিটে মেক্সারের গোলে সমতায়ও ফেরে তারা।

নির্ধারিত সময়ে ২-২ গোলে সমতা থাকায় ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। সেখানেও কেউই গোল করতে না পারলেও ১১৮ মিনিটের সময় লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন কিলিয়ান এমবাপ্পে। এরপর ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানে প্রথম পাঁচটি শটেই গোল করে দুই দলের তারকারাই।

তবে ৬ষ্ঠ শটে রেনেসের ইসমাইল সার গোল করলেও পিএসজির ক্রিষ্টোফার এনকুকু গোল করতে পারলে শিরোপা জিতে নেয় রেনেস।