ফেনীতে যুবককে হাত-পা বেঁধে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা

গতকাল ১০ এপ্রিল বুধবার সন্ধ্যায় ফেনীর সোনাগাজীতে এক যুবককে হাত-পা বেঁধে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করেছে দুর্বত্তরা। গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে পৌরসভার চর গণেশ এলাকায় এ ঘটনা হয়।

এ ব্যাপারে স্বজনরা গণমাধ্যমকে জানান, আবু সালেহ মিম ঢাকার পলিটেকনিক্যালে ইলেক্ট্রিক্যাল বিভাগে শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী। গত রবিবার তিনি বাড়ি যান।

এরপর গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় চিৎকার শুনে বাড়ির লোকজন ছুটে এসে আবু সালেহ মিমকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উঠানে পড়ে থাকতে দেখে। এ সময় তার শরীরের পোশাক কেরোসিন তেলে ভেজা দেখতে পান স্বজনরা।

এক পর্যায়ে বাড়ির লোকজন তাকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় ফেনী জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে তাকে আশংকাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

এ ব্যাপারে আহতের বোন বলেন, ‘কেরোসিন ঢেলে আগুন দিতে চেষ্টা করেছিল, কিন্তু লোকজন এসে পড়ায় তারা আর আগুন দিতে পারেনি।’

এ ব্যাপারে চিকিৎসক ডা. মোহাম্মদ ওবায়েদুল্লাহ্ বলেন, ‘ছেলেটির অবস্থা খারাপ। এজন্য তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের কথা জানিয়েছি।’