মাশরাফির আচরন বাস স্টান্ডের বা লঞ্চ ঘাটের শ্রমিকদের মত: ডা. মৌমিতা

ডা. মৌমিতা জলিল নামে এই নারী ডাক্তারের দুইটি ফেসবুক পোস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। যাতে তিনি নড়াইল-২ আসনের এমপি ও জাতীয় ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাকে।

এদিকে ডা. মৌমিতা তার ফেসবুক আইডিতে লিখেন, ‘যাদের বদলী করা হয়েছে তাদের পরিবারে আজ ঈদের খুশি কারন এই বদলী করতে গেলেও মন্ত্রণালয়ের আমলাদের ৩-৪ টাকা লাখ ঘুষ দিতে হত। ধন্যবাদ ম্যাশ সাহেব কে ঘুষ না খেয়ে এই ৪ জন চিকিৎসককে বদলী করে দিয়েছেন।’

‘তবে ম্যাশ সাহেবের সরকারি চাকরির আচরন ও বিধিমালা শিখে সব সরকারী অফিসে যাওয়া উচিত। এক জন এমপির আচরন যদি বাস স্টান্ডের বা লঞ্চ ঘাটের শ্রমিকদের মত হয় তাহলে তার সম্মান এই সমাজ কিভাবে দিবে???’

‘আমরা চাই আমাদের সমাজের এমপি রাও তাদের কাজের জবাব দিহিতা জনগনের কাছে দিবে কারন তিনিও জনগনের নিয়োজিত কর্মচারী।’

এরপর তিনি তার অপর এক ফেসবুক পোস্টে লিখেন, ‘ম্যাশ তোমাকে নামিয়ে দিলাম, তুমি আমাদের ভালোবাসা পাওয়ার যোগ্যতা হারিয়ে ফেলেছো, এখন থেকে তুমি একজন worthless MP ছাড়া আমার কাছে আর কিছুই না….’

‘ডাক্তার জনগনের চাকর যদি হয় ত সব উকিল মোক্তার আমলা শিক্ষক পুলিশ দারোগা ব্যাংকার সবাই জনগনের চাকর। এভাবে লাইভ ভিডিও শেয়ার করে মাস্তানের মতো একজন কন্সাল্ট্যান্ট কে থ্রেট দেয়া কোন সংবিধানে আছে!’

‘তুমি তার বিরুদ্ধে অবশ্য ই প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে পারতে, কিন্ত নিজের অশিক্ষিত হবার প্রমাণ তুমি দিয়েই ছাড়লে…. শেষ পর্যন্ত রাজনীতির ফাউল প্লে তে নিজের নাম লিখে দেখিয়ে দিলে তোমার অবস্থান!’

‘Toমাশরাফি মুর্দাবাদ।’