শুধু মজা পেতেই ৫০০০ নবজাতককে বদলি করা সেই নার্স কঠিন রোগে আক্রান্ত

একসময় ইউনিভার্সিটি টিচিং হসপিটালে (UTH) কাজ করতেন এলিজাবেথ ব্যয়ালিয়া মোয়েওয়া। হসপিটালে থাকার সময় ১২ বছরে নাকি ৫ হাজার নবজাতকে বদলে দিয়েছিলেন। মৃত্যুপথযাত্রী সেই নার্স এমনই ঘটনার স্বীকারোক্তি করলেন।

তিনি জানান, এমনটা নাকি শুধু মজা পেতেই করেছিলেন। জাম্বিয়ার বাসিন্দা ওই নার্স এখন মারণ ক্যান্সারে আক্রান্ত। মৃত্যুপথযাত্রী এলিজাবেথ নিজের পাপের কথা স্বীকার করে তিনি।

তিনি জানিয়েছেন, ইচ্ছে করেই হাসপাতালের ৫০০০ নবজাতককে ভুল দম্পতির কোলে তুলে দিয়েছিলেন।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ‘আমি ক্যান্সারে আক্রান্ত এবং জানি আর বেশি দিন বাঁচব না। ঈশ্বরের কাছে নিজের পাপ স্বীকার করতে চাইছি এবং সমস্ত ভুক্তভোগীর কাছেও দোষ স্বীকার করছি।’

এলিজাবেথের এই দাবির পর অবশ্য কোনও বাবা-মা বা সন্তান জন্ম নথি দাবি করে হাসপাতালে আসেননি। তবে আদতে ১২ বছরে ৫ হাজার শিশু বদল করার দাবি সত্যি কিনা, বা এমনটা আসলেই সম্ভব কিনা সেটা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে।