সেই ঘাতক সুপ্রভাত বাসের মালিক আটক

রাজধানীর নর্দ্দা এলাকায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরীকে চাপা দিয়ে হত্যার ঘটনায় সুপ্রভাত পরিবহনের মালিক ননী গোপাল সরকারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গতকাল ৪ এপ্রিল বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে মুগদার একটি বাসা থেকে তাকে আটক করা হয় বলে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) নিশ্চিত করেছে।

Advertisement

জানা যায়, গুলশান থানায় দায়ের করা মামলাটির তদন্ত করছে ডিবি (উত্তর) পুলিশ। মামলার এজাহারে বাস মালিক গোপালের নাম না থাকলেও পরে জানা গেছে, আবরারকে চাপা দেওয়ার আগে আরও এক শিক্ষার্থীকে ধাক্কা দিয়ে আহত করে তার মালিকানাধীন বাসটি। তখন যাত্রীরা চালককে আটক করে ট্রাফিক পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

এরপর মালিকের নির্দেশে ড্রাইভিং সিটে বসে বাসটি নিয়ে পালানোর সময় কন্ডাক্টর ইয়াসিন আরাফাত নদ্দার প্রগতি সরণিতে বিইউপির শিক্ষার্থী আবরারকে চাপা দেয় এবং ঘটনাস্থলেই আবরার মারা যান।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গোপাল চন্দ্র কর্মকারের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ডিএমপি উপকমিশনার মশিউর রহমান বলেন, ‘আমরা তাকে খুঁজছি। গ্রেপ্তার করা হলে জানানো হবে।’

এর আগে রাজধানীর নদ্দা এলাকায় ১৯ মার্চ সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বাসচাপায় নিহত হন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস (বিইউপি)-এর শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী। যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে সুপ্রভাত নামের একটি বাস তাকে চাপা দেয়।

এই ঘটনার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করেন। ঘাতক বাস সুপ্রভাত পরিবহনের রুট পারমিট বাতিল, ঘাতক চালকের ফাঁসির দাবিসহ আট দফা দাবিতে বেশ কয়েকটি সড়ক অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা।