“অনন্য এক মাইলফলকের সামনে সাকিব আল হাসান”

৩৫৯ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে আফগানিস্তানের অলরাউন্ডার রশিদ খানকে টপকে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের শীর্ষ অলরাউন্ডারারের জায়গা দখল করেছেন সাকিব আল হাসান। তিনি বাংলাদেশের একমাত্র ক্রিকেটার যিনি বিভিন্ন গ্লোবাল টুর্নামেন্টে সর্বাধিক সংখ্যক ম্যাচ খেলে থাকেন। ইতোমধ্যে তিনি ছুঁয়েছেন ক্রিকেটের অসংখ্য মাইলফলক। একসময়ে থাকা তিন ফরমেটের সেরা এই অলরাউন্ডারকে হাতছানি দিয়ে ডাকছে আরেকটি মাইলফলক। আর মাত্র ৫ রান করলেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তিন ফর্মেট মিলিয়ে এগারো হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করবেন তিনি। বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারের তিন ফর্মেট মিলিয়ে বর্তমান রান সংখ্যা দশ হাজার নয়শ পঁচানব্বই।

পরিসংখ্যানের দিকে তাকালে দেখা যাবে, তিনি ৫৫টি টেস্টে ৬১.৯০ স্ট্রাইক রেটে, ৩৯.৬৬ গড়ে মোট তিন হাজার আটশত সাত রান করেন। যার মধ্যে ৫টি সেঞ্চুরি ও ২৪টি হাফসেঞ্চুরি আছে। ওয়ানডেতে ১৯৮ ম্যাচ খেলে ৮১.৫৫ স্ট্রাইকরেটে , ৩৫.৫১ গড়ে মোট পাচঁ হাজার সাতশো সতেরো রান করেন। যার মধ্যে ৭টি শতক ও ৪২টি অর্ধশতক রয়েছে। এছাড়াও তিনি ৭২টি টি-টুয়েন্টি খেলে ১২৩.১০ স্ট্রাইক রেটে, ২৩.৩৫ গড়ে ১৪৭১ রান করেন। তিনি ক্রিকেটের এই ছোট্ট ফর্মেটে কোন সেঞ্চুরির দেখা না পেলেও ৮টি অর্ধশতক হাঁকিয়েছেন।
যদি কোন অঘটন না ঘটে তাহলে আগামি মাসের দুই তারিখ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এই অসাধারণ মাইলফলক ছোঁয়ার মধুর স্বাদ পাবেন এই তারকা ক্রিকেটার। পাশাপাশি এগারো হাজারী ক্লাবের নতুন সদস্য হিসেবে পা রাখবেন তিনি।