এসএসসি পরীক্ষার ফল প্র্রকাশ

মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষায় ফলফল প্রকাশিত হয়েছে। এবার ৮২ দশমিক ২০ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে, যাদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৫৯৪ জন।

সোমবার (৬ মে) সকালে রাজধানীর শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানদের সঙ্গে নিয়ে সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করেন। প্রথা অনুযায়ী, আগে প্রথমে প্রধানমন্ত্রীর হাতে ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেওয়া হতো। এরপর শিক্ষামন্ত্রী মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে ফলাফলের বিস্তারিত জানাতেন। কিন্তু এবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লন্ডন সফরে থাকায় তা হলো না।

এবারের পরীক্ষায় পাসের হার ৮২ দশমিক ২০ শতাংশ। এর মধ্যে এসএসসিতে ৮২ দশমিক ৮০ শতাংশ, মাদ্রাসায় ৮৩ দশমিক ০৩ শতাংশ এবং কারিগরিতে ৭২ দশমিক ২৪। এবার জিপিএ ফাইভ পেয়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৫৯৪ জন।

এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এর মধ্যে ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ জন ছাত্রী এবং ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১ জন ছাত্র।

বেলা ১২টার পর থেকে পরীক্ষার্থীরা বিভিন্ন মাধ্যমে ফল জানতে পারবেন। মোবাইলে জানা যাবে ফলাফল। এসএমএসের মাধ্যমে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল মোবাইলে পাওয়া যাবে। মোবাইলে ফল পেতে SSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে আবার স্পেস দিয়ে পাসের বছর লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

আর মাদরাসা বোর্ডের ক্ষেত্রে Dakhil লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে আবার স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে পাসের সাল লিখে পাঠাতে হবে পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

অন্যদিকে, কারিগরি বোর্ডের এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষার ফল জানতে ssc লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে পাসের সাল লিখে পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

যে কোনো মোবাইলের মাধ্যমে এসএমএস, স্ব স্ব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ নানা মাধ্যমে প্রাথমিকভাবে এসএসসি ও সমমানের ফল পেলেও এবার পাওয়া যাবে নতুন ওয়েবসাইটে।

সাধারনত www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইটে ঢুকে থাকেন শিক্ষার্থীরা। কিন্তু ফল প্রকাশের পর একযোগে লাখ লাখ শিক্ষার্থী একই ওয়েবসাইটে ঢোকায় তা ঠিকমতো কাজ করে না। আগের বছরগুলোতে এ সমস্যা দেখা দিয়েছে।

তবে এবার ফল ডাউনলোড করতে একাধিক মাধ্যম ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক।

তিনি বলেন, এই www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইট ছাড়াও স্ব স্ব শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইডে গিয়েও ফল ডাউনলোড করতে পারবে শিক্ষার্থীরা। যেমন ঢাকা বোর্ডের শিক্ষার্থীরা www.dhakaeducationboard.gov.bd এই ওয়েবসাইটে গিয়ে result কর্নার ক্লিক করেও ফল জানতে পারবে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের ওয়েবসাইট অত্যন্ত শক্তিশালী। সার্ভার আগের চেয়ে উন্নত করা হয়েছে। আশা করছি কোনো সমস্যা হবে না। তবে শিক্ষার্থীরা যদি বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহার করে তাহলে আরো সুবিধা হবে।