ওয়াকার ইউনিসকে ধুয়ে দিলেন আফ্রিদি

সাম্প্রতি বাজারে এসেছে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদির আত্মজীবনীমূলক বই ‘গেম চেঞ্জার’। এতে তার ক্রিকেট ক্যারিয়ার ও ব্যক্তিগত জীবনের নানা জানা-অজানা বিষয় তুলে ধরেছেন। আর আফ্রিদির আত্মজীবনীমূলক বইয়ে সেসব বিষয় প্রকাশ্যে এসেছে এতে পাকিস্তানের ক্রিকেটে নতুন বিতর্ক তৈরি হচ্ছে।

বইটিতে বুমবুম আফ্রিদি পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ওয়াকার ইউনিস সম্পর্কে বিষোদগার করেছেন। তিনি ওয়াকারের নেতৃত্বের সমালোচনা করে বলেছেন, ওয়াকার ছিলেন একজন ‘ভয়াবহ অধিনায়ক’।

আফ্রিদির আত্মজীবনীতে ২০০৩ সালের বিশ্বকাপে ওয়াসিম আকরামকে নেতৃত্ব না দিয়ে ওয়াকারকে অধিনায়ক করার সমালোচনাও উঠে এসেছে। তিনি বলেছেন, ২০০৩ বিশ্বকাপে পাকিস্তান দলে সু-নেতৃত্বের অভাব ছিল।

তিনি বলেন, ২০০৩ বিশ্বকাপে জ্যেষ্ঠ খেলোয়াড়েরা নেতা হিসেবে চেয়েছিলেন ওয়াসিম আকরামকে। কিন্তু পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড নেতৃত্ব তুলে দেয় ওয়াকারের হাতে। ফলে দলকে সঠিকভাবে নেতৃত্ব দিতে ব্যর্থ হন ওয়াকার। তার নেতৃত্বের অদূরদর্শিতায় বিশ্বকাপসহ অনেক মেগা ইভেন্ট থেকে আমরা সহজেই ছিটকে পড়ি।

তাদের সহ-খেলোয়াড় শহীদ আফ্রিদির আত্মজীবনীমূলক বইটিতে টু-ডব্লিউর দ্বন্দ্বের বিষয় আরও খোলাসা হলো। সেই সঙ্গে নতুন বিতর্কও উস্কে দিল। যদিও ওয়াসিম আকরাম ও ওয়াকার ইউনিসের মনস্তাত্ত্বিক দ্বন্দ্বের বিষয়টি ক্রিকেট অঙ্গনে অজানা কিছু নয়।

বইটিতে আফ্রিদি পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ড্রেসিংরুমের রাজনীতির কড়া সমালোচন করে বলেন, ড্রেসিংরুমে রাজনীতি দলকে অধপতনের দিকে ধাবিত করেছিল।

বিশ্বব্যাপী তুমুল জনপ্রিয় শহীদ আফ্রিদি ক্রিকেট ও ক্রিকেটের বাইরেও ব্যতিক্রমী মেধার কারণে বেশ আলোচিত। তিনি খেলা ছেড়ে সম্প্রতি আফ্রিদি ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে জনসেবামূলক কাজ করছেন। আর এর লক্ষ্য সারাদেশে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেয়া, দুঃস্থদের সেবাদান ও ক্রিকেটার তৈরি করা। পাকিস্তানের বিখ্যাত সাংবাদিক ও আফ্রিদির ঘনিষ্ঠ বন্ধু ওজাহাত খান বইটি লিখেছেন।