দেখে দেখেও তো শিখতে পারে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা

আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরু হয়েছে গতকালই। এই সিরিজের প্রথম ম্যাচে গতকাল মাঠে নেমেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং আয়ারল্যান্ড। ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওপেনিং জুটিতেই রান এসেছে ৩৬৫ রান।

শুরু থেকেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই ওপেনার দেখে শুনে খেলেছেন। ব্যাটিং উইকেট ভেবেই শুরু থেকে মারা শুরু করেনি তারা। বলের গুনাগুন বিচার করে খেলেছেন। আর সেটা খেলেছেন বলেই তো ৩৬৫ রানের বিশাল ওপেনিং জুটি গড়া সম্ভব হয়েছে।

বিপরীতে গতকাল বাংলাদেশ আয়ারল্যান্ড এ দলের বিপক্ষে ৩০৮ রান তাড়া করতে নেমে অল আউট হল ২১৯ রানেই। অথচ মাঠ ছিল ছোট এবং পিচ ছিল ব্যাটিং বান্ধব। যার কারণে এই রান করা কোন কঠিন কিছু ছিল না।

ম্যাচ শেষে লিটন দাস বলল- ছোট মাঠ দেখে সবাই ছক্কা মারতে গিয়ে আউট হয়েছে তারা। তার কথাতে কি বুঝা যায় না যে- বলের গুনাগুন বিচার না করে মাঠের আয়তন দেখেই তারা বড় শট খেলতে চেয়েছিল! আর সেই কারণেই সবাই উইকেটের মিছিলে ছিল?

মুল সিরিজে যদি এগুলো পরিহার করতে না পারে তাহলে বাংলাদেশেরই বিপদ সেটা ক্রিকেটারদের বোঝা উচিত। আর এক্ষেত্রে কাছেই থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটারদের থেকেও শিক্ষা নিতে পারে তারা।