ফেসবুকে ছবি দেখে ধর্ষককে গনধোলাই

টাঙ্গাইলে গত শনিবার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়ুয়া এক শিশুকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে একটি নির্মাণাধীন পাকা বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে শহীদুল ইসলাম নামে এক যুবক। এরপর মেয়েটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় সেখানে ফেলে রেখে চলে যায়।

এরপর মেয়েটির কান্না শুনে আশেপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মধুপুর উপজেলা হাসপাতাল এবং পরে টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই শিশুটির মেডিকেল পরীক্ষা করা হয়।

এদিকে মেয়েটিকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয় এবং এরপর থেকেই পলাতক ছিল শহীদুল নামে ওই ধর্ষক। কিন্তু তার সন্ধান চেয়ে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেয়া হয়। পরে সেটি ভাইরাল হয়ে যায়।

সেই ছবি দেখেই স্থানীয় জনগন তাকে পাকুটিয়া বাসস্ট্যান্ডে ঘোরাঘুরি করার সময় দেখে ফেলে এবং গনধোলাই দেয়। পুলিশ বিষয়টির নিশ্চিত করে জানায়, শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি শহীদুলকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা। তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।