রুবেলের বিস্ফোরক ইয়র্কারে উপড়ে গেল এন্ডারসনের উইকেট

৩০ মে থেকে শুরু হবে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসর ক্রিকেট বিশ্বকাপ। বিশ্বকাপকে সামনে রেখে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন বাংলাদেশ দলের। বিশ্বকাপের আগে ত্রিদেশীয় সিরিজে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। এই সিরিজে অপরাজিত শিরোপা জিতে ফুরফুরে মেজাজে টিম টাইগার। আর আইসিসির আয়োজনে বিশ্বকাপ ক্রিকেটে ঘটে যাওয়া দুর্দান্ত মুহূর্তগুলোর মধ্য থেকে নির্বাচন করা হয় “দিনের সেরা মুহূর্ত”।

এ বিষয়ে একটি ভোটিং পোল চালু করে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা। আর দর্শকদের ভোটে বাংলাদেশের দারুণ এক জয়ের মুহূর্তও নির্বাচিত হয়েছে এবার। সেটা হল ২০১৫ বিশ্বকাপে পেসার রুবেল হোসেনের দুর্দান্ত বোলিংয়ে, ইংল্যান্ডকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে টাইগাররা। স্মরণীয় এই ঘটনাটিই ক’দিন আগে পেয়েছে বিশ্বকাপের অন্যতম সেরা মুহূর্তের খেতাব।

বাংলাদেশ ক্রিকেটের অবিস্মরণীয় সেই জয়ের ক্ষণ তো ভোলার নয়। বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ঢুঁ দিলে চোখে পড়ে, চলতি বছর ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এই ভোটিং পোলের কার্যক্রম। প্রতিদিন দর্শকদের ভোটে নির্বাচিত ঘটনাগুলো থেকে দিনের সেরা মুহূর্ত বেছে নেয়া হয়। ২৪ মে’র জন্য যেখানে আছে ২০১৫ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে বাংলাদেশের কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করার মুহূর্তটিও।

সেই সময় গ্রুপ পর্বে শক্তিশালী ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। বাংলাদেশ জন্য ইংলিশদের বধে ২৭৫ রানের পুঁজিই যথেষ্ট ছিলো। শেষ ২ ওভারে জয়ের জন্য থ্রি লায়নদের প্রয়োজন ছিলো ১৬ রান। তখন হাতে ছিল ২ উইকেট। নন স্ট্রাইকে ৪২ রানে অপরাজিত ক্রিস ওকস। সেসময় মাশরাফি বল তুলে দেন রুবেলের হাতে।

এরপর যা হয়েছে তা মুগ্ধ চোখে তাকিয়ে দেখেছে গোটা ক্রিকেট দুনিয়া। রুবেলের গতির সামনে পরাস্ত স্টুয়ার্ট ব্রড। ২ বল বাদে বিস্ফোরক ইয়োর্কারে উপড়ে খেলেন এন্ডারসনের উইকেটও।

এমন জয়ের ধ্বনি এখনো কানে বাজে ধারাভাষ্যকারের উত্তেজিত কণ্ঠস্বর। ধারাভাষ্যকারের উত্তেজিত কণ্ঠস্বর বলছিলেন, টাইগারদের কাছে হেরে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেলো লায়নরা। বাংলাদেশের ক্রিকেটে ঐতিহাসিক এক মুহূর্ত। সত্যিই তাই! ভোটাভুটিতে ২০১১ বিশ্বকাপে ধোনির ছক্কায় ভারতের শিরোপা জয়কে ছাপিয়ে এগিয়ে রুবেলের জাদুকরী স্পেল। এটিকে দিনের সেরা মুহূর্ত নির্বাচিত করতে চাইলে, এখনই কম্পিউটার বা মোবাইল হাতে বসে পড়ুন।