অফসাইডের ফাঁদে আটকে গেল ব্রাজিল

প্রথম ম্যাচে বলিভিয়াকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা শুরু করা ব্রাজিল আজ নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ভেনিজুয়েলার বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল। আর এই ম্যাচেই ব্রাজিলকে রুখে দিয়েছে ভেনিজুয়েলা। আরেকটু স্পষ্ট করে বললে ব্রাজিলকে রুখে দিয়েছে অফসাইড।

ভেনিজুয়েলার বিপক্ষে জিতলেই কোয়ার্টার ফাইনালে চলে যেত ব্রাজিলিয়ানরা। এমন ম্যাচে ব্রাজিলের তিনটি গোল বাতিল করে দলটিকে অপেক্ষায় রেখে দিল রেফারি।

ভেনিজুয়েলার বিপক্ষে শুরু থেকেই আক্রমনাত্মক খেলতে থাকে ব্রাজিল। ম্যাচের ১৫ মিনিটের সময় দারুণ একটি সুযোগও এসেছিল দলটির তারকা ডেভিড নেরেসের সামনে। তবে তার নেয়া শট বারপোষ্টের বাইরে দিয়ে চলে গেলে বেঁচে যায় ভেনিজুয়েলা।

২ মিনিট পর ফিরমিনোর শট ঝাঁপিয়ে পড়ে রক্ষা করে ভেনিজুয়েলাকে বাঁচান দলটির গোলরক্ষক। পাল্টা আক্রমনে ব্রাজিলকে বার দুয়েক কাঁপিয়ে দিয়েছিল ভেনিজুয়েলাও।

ম্যাচের ৩৭ মিনিটে প্রথম গোলের দেখা পায় ব্রাজিল। কিন্তু এই গোলটি বাতিল হয়ে যায় ফাউলের কারণে। ফিরমিনো শট নেয়ার মুহূর্তে প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড় তার গায়ে লেগে পড়ে গেলে ফাউল হয়। যার কারণে গোলটি বাতিল করে রেফারি।

গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধেও আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে ব্রাজিল। এই অর্ধে ম্যাচের ৬০ মিনিটের সময় গোল করেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। কিন্তু অফসাইডের কারণে এই গোলটিও বাতিল করা হয়।

এরপর ম্যাচের ৮৭ মিনিটে আরেকটি গোল করেন প্রথম ম্যাচের নায়ক কৌতিনহো। কিন্তু বাতিল করা এই গোলটিও। এই গোলটিও বাতিল হয় অফসাইডের কারণে।

শেষ পর্যন্ত অফসাইডের ফাঁদেই আটকে গিয়ে এই ম্যাচে গোলহীন থাকে ব্রাজিল।