‘অবিশ্বাস্য’ মাহমুদউল্লাহকে ছাড়িয়ে, শচীন-পন্টিংদের পাশে সাকিব

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ মিশন যেন পুরোটাই সাকিব ময়। প্রথম দুই ম্যাচ টানা হাফসেঞ্চুরির পর। পরবর্তী দুই ম্যাচে টানা দুটি সেঞ্চুরি করে রেকর্ড সৃষ্ট করেছেন। এর আগে দুটি টানা সেঞ্চুরি করেন মাহমুদউল্লাহ। গেল বিশ্বকাপে তিনি পরপর দুটি সেঞ্চুরি হাকান।

আর এবার তার রেকর্ডে ভাগ বসালেন বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সাকিব এই রেকর্ডের পাশাপাশি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পক্ষে সবচেয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরি মালিক। ৮৩ বলে ১৩ চারে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন সাকিব। ৯৯ বলে ১৬ টি চার হাঁকিয়ে ১২৪ রানে অপরাজিত থেকে দল রেকর্ডীয় জয় উপহার দেন। এ বিশ্বকাপেই ইংলিশদের বিপক্ষে ১১৯ বলে ১২টি চার ও এক ছক্কায় ১২১ রান করেন সাকিব।

মাত্র চার ইনিংসে বিশ্বকাপে মাহমুদউল্লাহ ৬ ইনিংসে ৩৬৫ রানকে ছাড়িয়ে নভজ্যোত সিং সিধু, শচীন টেন্ডুলকার, গ্রায়েম স্মিথ, কুমার সাঙ্গাকারা, মার্ক ওয়াহ, রাহুল দ্রাবিড়, রিকি পন্টিংদের পাশে।

১৯৮৭ বিশ্বকাপে নভজ্যোত সিং সিধু, ১৯৯৬ বিশ্বকাপে শচীন টেন্ডুলকার, ২০০৭ বিশ্বকাপে গ্রায়েম স্মিথ আর ২০১৫ বিশ্বকাপে কুমার সাঙ্গাকারা টানা চার ইনিংসে ৫০ কিংবা এর বেশি রান তোলেন। অবশ্য সাঙ্গাকারা টানা চার সেঞ্চুরির অবিশ্বাস্য কীর্তি গড়েছেন।

সেটি সাকিবের জন্য দুই ইনিংসের দূরত্ব। অনেক দূরের পথ কিন্তু আবার কাছেও! তবে টানা দুই বিশ্বকাপ সেঞ্চুরি দিয়ে সতীর্থ মাহমুদউল্লাহকে ছোঁয়ার পাশাপাশি এরই মধ্যে সাকিব বসেছেন মার্ক ওয়াহ, রাহুল দ্রাবিড়, রিকি পন্টিংদের পাশে।