এটাকে সাকিবের চাকরি হিসেবে নিতে হবে: সালাউদ্দিন

দেশের স্বনামধন্য কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন তার শিষ্য তামিমকে তার স্বভাবসুলভ ক্রিকেট খেলার পরামর্শ দিয়েছেন। আর প্রিয় শিষ্য সাকিবের অসাধারণ পারফরম্যান্সে উচ্ছ্বসিত না হয়ে এটাকে সাকিবের রুটিন কাজ হিসেবে দেখছেন তিনি।

কোচ সালাউদ্দিন মনে করেন, ইংল্যান্ডের উইকেটে তামিমকে তার নিজস্ব ধরণেই ব্যাট করতে হবে। তামিমের নিজের শক্তির জায়গাগুলোতে হয়তো সে মারছে না। সেটা করতে পারলে সে নিজে থেকেই প্রেসার থেকে বেরিয়ে যাবে। পায়ে বল দিলে তামিমের সেগুলো চার হয়ে যেতো। এখন হচ্ছে না। আমি মনে করি, এই প্রেসার থেকে তাকে নিজেকেই বের হবার সুযোগ দিতে হবে।

তিনি মনে করেন, এভাবে খেলাটাই সাকিবের রুটিন কাজ। একজন ক্রিকেটার হিসেবে তার কাজই হলো তাকে প্রতিদিন পারফর্ম করতে হবে। এটা তার চাকরি। তাকে প্রতিদিনই ভালো করতে হবে। এটা নিয়ে খুশি হওয়ারও কিছু নাই। এটা নিয়ে দুঃখ পাওয়ারও কিছু নাই।’

ঘরোয়া ক্রিকেটের জনপ্রিয় কোচ ইংল্যান্ডের উইকেট থেকে কোনো সুবিধা নিতে পারছেনা বাংলাদেশ জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ হয়তো জিততো বা হারতো। সেটা বড় কথা না। বড় কথা হল, ওই ম্যাচে হয়তো কিছু প্লেয়ার পেতাম যারা ভালো করতো। বুঝতে পারতাম যে, আমরা বেটার করছি। এই কারণেই আমি মনে করি, বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বড় লোকসান এই বৃষ্টিটা।

সালাউদ্দিন বলেন, বাকি ম্যাচগুলো আমাদের জন্য অনেক কঠিন হবে। কারণ, এই কন্ডিশনে আমাদের পেস বোলিং বেশ দুর্বল মনে হচ্ছে আমার কাছে। আপনি যদি পিচের সুবিধা কাজে লাগাতে না পারেন তাহলে হবে না। ওই কন্ডিশনে যদি আমাদের স্পিন অ্যাটাক মেইন অ্যাটাক হয় তাহলে তো দুঃখজনক।

তিনি, পেসটা আসলে খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ না। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল উইকেট থেকে আপনি সুবিধা নিতে পরছেন কিনা। আমার মনে হয়, লেন্থটাও বড় ফ্যাক্টর। অনেক দিনই হয়ে গেছে, তারা এখনো অ্যাডজাস্ট করতে পারেনি। আমার মনে হয়, অনেক দিন ইংল্যান্ডে আছে এখন লেন্থটা অ্যাডজাস্ট করা খুবই জরুরি।