চলচ্চিত্রে ২৯ বছরে এসে সম্মাননা পেয়েছেন ওমর সানী

ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা ওমর সানী। আশির দশকের শেষ দিকে চলচ্চিত্রে পা রাখেন তিনি। আর নব্বই দশকে তার জনপ্রিয়তার শুরু। মৌসুমী, শাবনূরদের সঙ্গে জুটি বেঁধে অনেক সুপারহিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন তিনি। আর দেখতে দেখতে ক্যারিয়ারের ২৯ টি বসন্ত পার করে দিয়েছেন তিনি।

তবে এখন আর অভিনয়ে আগের মতো নিয়মিত নন তিনি। যদিও মাঝেমধ্যে তার দেখা মেলে রুপালি পর্দায়। নিয়মিত না হওয়ায় স্ত্রী প্রিয়দর্শিনী মৌসুমী ও পুত্র-কন্যা নিয়ে সুখের সংসারেই কেটে যায় দিনগুলো।

Advertisement

সম্প্রতি তিনি আমেরিকান বাংলাদেশ প্রেসক্লাব কর্তৃক একটি সম্মাননা পেয়েছেন। দীর্ঘদিনের অভিনয় জীবনে অনেক স্বীকৃতি ও সাফল্যের মুকুটে নতুন করে আরও একটি পালক যোগ হলো ওমর সানীর।

চলচ্চিত্রে ২৯ বছরের ক্যারিয়ারের জন্য তাকে এই সম্মাননা দেওয়ার কথা জানিয়েছেন আমেরিকান বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহাবুদ্দিন সাগর।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ওমর সানীর অনেক সিনেমাই নব্বই দশক মাতিয়ে রেখেছিলো। ‘লাট সাহেবের মেয়ে’, ‘দোলা’, ‘কে অপরাধি’, ‘গরীবের রানী’, ‘হারানো প্রেম’ ছবিগুলো তার অনন্য উদারহরণ।

শাহাবুদ্দিন সাগর বলেন, অভিনয়ের বাইরে তিনি একজন সজ্জন মানুষ। একজন সফল প্রেমিক ও স্বামী, সফল বাবাও। তার মতো অভিনেতাকে সম্মান জানাতে পেরে আমরাও সম্মানিত বোধ করছি। আমেরিকান বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে ওমর সানী ও মৌসুমী দম্পতির জন্য শুভকামনা রইলো।’

এদিকে সম্মাননা পেয়ে উচ্ছ্বসিত ওমর সানী নিজেও।

ওমর সানী বলেন, ‘আজ আমার অভিনয় জীবনের বড় একটি সার্থকতা। আমার ২৯ বছরের চলচ্চিত্র জীবনের স্মরণীয় ঘটনাও বলা যায়। অভিনয়ের জন্য এই সম্মাননা পেয়েছি। আমি ধন্যবাদ জানাই আমেরিকান বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি দর্পণ কবীর ও সাধারণ সম্পাদক শাহাবুদ্দিন সাগর ভাইকে ধন্যবাদ জানাই।’

আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেসক্লাব এর আগে জাতিসংঘের শুভেচ্ছা দূত ও বাংলাদেশের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা মৌসুমীকেও আজীবন সম্মাননা দিয়েছে। এ সম্মাননা দেয়ার পাশাপাশি মৌসুমীকে ক্লাবের সম্মানিত সদস্য পদও প্রদান করা হয়।