বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিল আফগানিস্তান

শনিবার সাউদাম্পটনের রোজ বোলে ভারতের বিপক্ষে দারুন এক সুযোগ পেয়েও ইতিহাস রচনা করতে পারলো না আফগানিস্তান। ভারতের দেওয়া ২২৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ধীর গতিতে শুরু করেছে আফগানিস্তান। ভারতীয় দুই বোলার সামি ও বুমরাহ বোলিংয়ে কোন মতে সামলে নিচ্চে আফগান ব্যাটসম্যানরা। ভালো শুরু করেও বিপাকে আফগানিস্তান। ২০ রানে মাথায় আউট হন জাজাই। এরপর ২৭ রান করে গুলবদীন নাঈব। ৩৬ রান করে বোমরার বলে ফিরে যান রহমত শাহ। আবারো বোমরার আঘাত। ফিরে যান হাশমতুল্লাহ শহীদী। ৪৫ বলে ২১ রান করেন তিনি। এরপর চাহলে বলে ফিরে যান আসগর আফগান। দলকে বিপদে ফেলে ১৯ বলে ৮ রান করে বিদায় নেন তিনি।

বিপর্যয় থেকে কিছুটা হলেও দলকে টেনে তোলার চেষ্টার করে নাজিবুল্লাহ জাদরান। কিন্তু ২৩ বলে ২১ রান করে পান্ডিয়ার বলে ফিরে যান। তার বিদায় জয়ে থেকে দূরে চলে গেল আফগানিস্তান। অর্ধশতক হাঁকিয়ে বিদায় নিলেন নবী জিতাতে পারেননি নবী। নবীর আউট হলে বাকি দুই জন ও আউট হন। আর এতে ১১ রানে জয় পায় ভারত। ৪৯.৫ বল বলে সব উইকেট হারায়।আফগানিস্তান।

আর ১১ রানের পরাজয়ে চলতি বিশ্বকাপের প্রথম দল হিসেবে সেমিফাইনাল খেলার সম্ভাবনা নিঃশেষ হয়ে গেছে আফগানিস্তানের। কারণ ৬ ম্যাচ শেষে তাদের জয়ের খাতা এখনও শূন্য। বিশ্বকাপের পয়েন্ট টেবিল জানাচ্ছে ছয় ম্যাচ শেষে ০ পয়েন্ট নিয়ে সবার নিচে অবস্থান করছে আফগানিস্তান। আর সমান ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। টেবিলের পরের তিনটি অবস্থান যথাক্রমে নিউজিল্যান্ড (৯), ভারত (৯) ও ইংল্যান্ড (৮)।

সমীকরণে যেহেতু টেবিলের শীর্ষ চার দলই যাবে সেমিতে, তাই কাগজে-কলমেও আর কোনো সম্ভাবনা বাকি নেই আফগানিস্তানের। কারণ নিজেদের বাকি থাকা পরের তিন ম্যাচ থেকে পূর্ণ ৬ পয়েন্ট পেলেও, এখনো পর্যন্ত ৪ নম্বরে থাকা ইংল্যান্ডকেই টপকাতে পারবে না তারা। ফলে পাওয়া হবে না সেমিফাইনালের টিকিট। তাই সবার আগে বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেল দলটির।