মায়ের সেবা করার জন্য একি সিদ্ধান্ত নিল ছেলে, পড়ুন বিস্তারিত

বিয়ে করলে ছেলেরা বউর আচল ধরে মাকে ভুলে যায়। এতে করে বাবা মায়ের কষ্টের শেষ থাকে না। সেজন্য বাবা মায়ের যেন কষ্ট না হয় সেজন্য চিরকুমার থাকার প্রতিজ্ঞা করেন দ্বিজেন্দ্র নাথ বালা।

তবে শেষ পর্যন্ত বিয়ের পিড়িতে বসেছেন তিনি। সেটাও ৬৫ বছর বয়সে। পাত্রী সীমা বিশ্বাসের (৪৫) সঙ্গে বিবাহে আবদ্ধ হন।

শুক্রবার রাতে বাগেরহাটের চিতলমারীতে এমন বিয়ের খবর পাওয়া গেছে। দ্বিজেন বালা বাগেরহাট উপজেলার আড়ুয়াবর্ণি গ্রামের (মৃত) হরেন বালার ছেলে। এ বিয়েতে বরযাত্রী ও উৎসুক লোকজন রাত জেগে বিয়ে উপভোগ করেন। মহাধূমধামের সাথে এ বিয়ে সম্পন্ন হয়।

জানা যায়, দ্বিজেন্দ্রর বাবা মারা গেছে ২ বছর হল। এখন তাই মাকে বাড়িতে একা রেখেই কাজে যেতে হয়। সেজন্য মাকে দেখা শোনার জন্য বিয়ে করেন তিনি। মায়ের কথাতেই তিনি করেছেন এই বিয়ে।