সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে জয় উদযাপন করলেন উইলিয়ামসন

বৃষ্টি বিঘ্নিত দক্ষিণ আফ্রিকা-নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৪৯ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৪১ রান করে দক্ষিণ আফ্রিকা। ২৪২ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই উইকেট হারাতে থাকে নিউজিল্যান্ড।

ব্যক্তিগত ৯ রানে রাবাদার বলে তার হাতে ধরা পড়ে ফিরেন মুনরো। এরপর দলের হাল ধরেন গাপটিল ও উইলিয়ামসন। কিন্তু ৩৫ রান করে ফেলুকায়োর বলে হিট আউটের শিকার হয়ে ফিরেন গাপটিল। এরপর কিউই শিবিরে জোড়া আঘাত করেন মরিস। মরিসের বলে ডি ককের হাতে ক্যাচ দিয়ে ১ রান করে ফিরেন টেলর ও লাথাম।

এরপর দুর্দান্ত হাফসেঞ্চুরি তুলে নিলেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। এরপর ফিরে যান জিমি নিশাম। দুর্দান্ত খেলতে থাকা জিমিকে ফিরিয়ে দিলেন ক্রিস মরিস। ৩৪ বলে ২৩ রান করেন জিমি।

তবে বিপর্যয় কারিয়ে জয়ের পথে নিউজিল্যান্ড। গ্র্যান্ডহোমে হাফসেঞ্চুরিতে জয়ে স্বপ্ন দেখ তারা। ৩৯ বলে ৪টি চার ও ২ট ছক্কা ৫২ রান করে ক্রিজে আছেন। এরপর তিনি ধ্বংসলিলা শুরু করেন। তবে ৬০ করা গ্র্যান্ডহোমকে ফিরিয়ে ম্যাচে ফিরে দক্ষিণ আফ্রিকা। লুঙ্গি এনগিদি তাকে ফিরিয়ে দেন।

তবে অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ব্যাটিং ধীরতায় জয় পায় নিউজিল্যান্ড। ১৩৭ বলে সেঞ্চুরি হাকার উইলিয়াম। ১০৬ রান করে অপরজিত থাকেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ৩ বল জয় তুলে নেয় নিউজিল্যান্ড। ৪ উইকেটে জয় পায় তারা। ৩ বল বাকি থাকতে ২৪৫ রান করে উইলিয়ামের দল। আর এই হারে সেমিতে উঠা থেকে আর এক ধাপ ছিটকে গেল দক্ষিণ আফ্রিকা।

দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ: ফাফ ডু প্লেসিস, কুইন্টন ডি কক, হাশিম আমলা, এইডেন মারক্রাম, ডেভিড মিলার, ভ্যান ডার ডুসেন, ফেলোকায়ো, ক্রিস মরিস, কাগিসো রাবাদা, ইমরান তাহির, লুঙ্গি এনগিদি।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: কেন উইলিয়ামসন, মার্টিন গাপটিল, কলিন মুনরো, রস টেলর, টম লাথাম, গ্র্যান্ডহোম, জিমি নিশাম, মিশেল সান্টার, ম্যাট হেনরি, বোল্ট, লুক ফার্গুসন।