হঠাৎ ছাত্রদলে গণ বহিষ্কার

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) অঙ্গ সংগঠন ছাত্র দলের বেশ কয়েকজনকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বয়সসীমা নির্ধারণ না করে ধারাবাহিক ছাত্রদলের কমিটি গঠনের দাবিতে যারা বেশ কয়েকদিন ধরে আন্দোলন করছিল তাদের ১২ জনকে বহিষ্কার করা হয়।

শনিবার (২২ জুন) রাতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

বিএনপির মহাসচিব পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দলীয় শৃঙ্খলা বহির্ভূত কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার সুষ্পষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের নিম্ন বর্ণিত নেতৃবৃন্দকে দলের প্রাথমিক সদস্য পদসহ সকল পর্যায়ের পদ থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। এই আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে।

বহিষ্কৃতরা হলেন, বাশার সিদ্দিকি-সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদল। জহির উদ্দিন তুহিন-সভাপতি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রদল। এজমল হোসেন পাইলট-সাবেক সহ-সভাপতি, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ।

ইকতিয়ার কবির-সাবেক সহ-সভাপতি, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ। জয়দেব জয়-সাবেক সহ-সভাপতি, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ। মামুন বিল্লাহ-সাবেক সহ-সভাপতি, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ। আসাদুজ্জামান আসাদ-সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ।

বায়েজিদ আরেফিন-সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ। দবির উদ্দিন তুষার-সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ। গোলাম আজম সৈকত-সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ। আব্দুল মালেক-সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ। আজীম পাটোয়ারী-সাবেক সদস্য, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ।