ব্যাটিং পিচে ব্যাটসম্যানদের আত্মহত্যা

ভারতের বিপক্ষে এই ম্যাচটি ছিল মহাগুরুত্বপূর্ন। এই ম্যাচে হারা মানেই টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিশ্চিত। আর ব্যাটিং স্বর্গের এই ম্যাচে দারুণ সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি টাইগাররা। হেরেছে বড় ব্যবধানে।

এজবাস্টনের মাঠ ছিল ব্যাটিং পিচ। এই মাঠ ইংল্যান্ডের অন্যতম ব্যাটিং স্বর্গ বলা হয়। আর এই ব্যাটিং স্বর্গেই কিনা ব্যাটসম্যানদের দোষে হারল বাংলাদেশ।

এজবাস্টনের এই ম্যাচে ৩১৪ রান খুব বেশি রান নয়। ছোট মাঠে রান করাটাও অনেকটাই সহজ। কিন্তু এই সহজ কাজটি সবচেয়ে কঠিন করে নিল বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। নিজেরা আউট হয়েছে দৃষ্টিকটু ভাবে। আউটের ক্ষেত্রে ভারতীয় বোলারদের কৃতিত্বের চেয়েও বেশি দায়ী ছিল বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা।

তামিম ইকবালের আউটটি ছিল খুবই দৃষ্টিকটু। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেও একই ভাবে আউট হয়েছিলেন তিনি। তামিমের মতই ব্যাট দিয়ে বল টেনে এনেছিলেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

মুশফিকুর রহীম বল স্কয়ার লেগ দিয়ে উড়িয়ে মারতে গিয়ে তুলে দিয়েছেন কাছেই দাড়ানো ফিল্ডারের হাতে। লিটন দাস বাউন্সারে বিভ্রান্ত হয়ে আউট হয়েছেন। সবগুলো আউটেই দায় ছিল বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদেরই।

আর এমন ব্যাটিং করলে তখন ব্যাটিং পিচও হয়ে যায় কঠিন থেকে কঠিনতর। সেটাই হল বাংলাদেশের ক্ষেত্রে। হেরে গেল তারা। আর তাতে ছিটকে গেল সেমিফাইনালের লড়াই থেকে।