নির্বাহী প্রকৌশলী হলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের কৃতিসন্তান হারুন অর রশিদ

গণপূর্তের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী থেকে পদোন্নতি পেয়ে নির্বাহী প্রকৌশলী হলেন ছয়জন প্রকৌশলী।তারা প্রত্যেকেই বিসিএস ৩১ ব্যাচের কর্মকর্তা।
সোমবার গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সুরাইয়া বেগম স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এই দায়িত্ব দেয়া হয়।
আমের রাজধানী ক্ষ্যাত, গৌড় এবং বরেন্দ্র সংস্কৃতির চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় বেড়ে উঠা অত্যন্ত মেধাবী ছাত্র মোঃ হারুন অর রশিদ।
২০০৫ সালে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টে ভর্তি হন হারুন। যথারীতি মেধার স্বাক্ষর রেখে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় বসেন এবং ৩১ বিসিএস ব্যাচে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে যোগদান করেন।
ছাত্রজীবনে বঙ্গবন্ধু এবং বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতি সচেতন শিক্ষার্থী হিসেবে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করেন।
চাকুরিতে যোগদানের পর সহকারী প্রকৌশলী পদে গণপূর্ত প্রকল্প বিভাগ-৪, পূর্ত ভবনে, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী পদে পাবনা, চুয়াডাঙ্গা এবং বর্তমানে রাজারবাগ-২ উপ-বিভাগে সুনামের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৮৭ সালে জন্ম নেয়া সংস্কৃতি সচেতন দেশপ্রেমিক কর্মকর্তা হারুন বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও পেশাজীবী সংগঠনে ওতপ্রোতভাবে জড়িত।
তিনি প্রকৌশলীদের অধিকার সুরক্ষার সংগঠন আই,ই,বি’র আজীবন সদস্য।
নিজ মাটির মানুষের অগ্রগতির প্রশ্নে প্রতিশ্রুতিশীল কর্মকর্তা হারুন চাঁপাই নবাবগঞ্জ জেলা সমিতির কার্যকরী সদস্য এবং দিয়াড়ের কার্যকরী সদস্য।এছাড়া নানাবিধ সমাজ উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে তাঁর আছে স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ। মানবিক এই কর্মকর্তা ব্যক্তিগতভাবে মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের পৃষ্ঠপোষকতা করে থাকেন। দুস্থ ও চিকিৎসা সেবা প্রার্থী মানুষেরা তাঁর পর্যন্ত পৌছলে যথাসাধ্য সেবা সহযোগিতা করতে সবসময় সচেষ্ট থাকেন।
নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ হারুন অর রশিদের উত্তরোত্তর সাফল্য প্রার্থণা করে জেলা তথা দেশবাসীর নিকট দোয়া কামনা করেছেন।

Advertisement