কিছু স্মৃতি কেউ কেড়ে নিতে পারবে না: বিবাহবার্ষিকীতে ফারিয়া

মিডিয়া পাড়ার বেশ আলোচিত ও জনপ্রিয় মুখ শবনম ফারিয়া। শোবিজে ফারিয়া মডেলিং দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন। এরপর থেকে ফারিয়াকে দেখা যায় ছোট পর্দায়। এছাড়াও বড় পর্দাতে অভিষেক হয়েছে ফারিয়ার।

দুই পর্দার দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী ফারিয়া ২০১৫ সালে ফেসবুকের মাধ্যমে হারুন অর রশীদ অপুর সঙ্গে পরিচিত হন। এরপর দুজনের মাঝে গড়ে বন্ধুত্ব তারপর বন্ধুত্বের সীমানা পেরিয়ে ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে আংটি বদল করেন ফারিয়া-অপু। এরপর ২০১৯ সালের ১ ফেব্রুয়ারি জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন ফারিয়া-অপু।

কিন্তু দুই বছর না পেরুতেই ফারিয়া-অপুর সংসারে ভাঙনের সুর বেজে ওঠলো। সর্বশেষ গত বছরের ২৭ নভেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে ফারিয়া-অপুর।

আজ সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) ফারিয়া-অপুর বিবাহবার্ষিকী। সংসার ভেঙে গেলেও বিয়ের সেই স্মৃতি ফারিয়াকে এখনো তাড়া করে বেড়ায়। এখনো বিয়ের ছবি নিজের ফেসবুকে রেখেছেন ফারিয়া।

বিবাহবার্ষিকীর ছবি নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যটাসও দিয়েছেন ফারিয়া। স্মৃতিকাতর হয়ে ফারিয়া ফেসবুকে স্ট্যাটাসে লিখেছেন, কিছু স্মৃতি কেউ আমার কাছ থেকে কখনো কেড়ে নিতে পারবে না! পরপর কয়েকজন বললো, তুমি ফেসবুকে বিয়ের ছবি দিয়ে রাখছো কেন? কারণ ওইটা আমার বিয়ে ছিল।

বিয়ে ফারিয়ার জীবনে সবচেয়ে স্মরণীয় একটি দিন। এ বিষয়টি উল্লেখ করে ফারিয়া লিখেছেন- ছোটবেলা থেকে স্বপ্ন ছিল বউ সাজব, ঘোড়ায় চড়ে বর আসবে। আমার পরিবার আমার সব স্বপ্নপূর্ণ করেছে! শুধু একটি মানুষ তার দায়িত্ব থেকে পালিয়ে গেল বলে কি আমার স্বপ্নপূরণের পুরো ব্যপারটাই এখন মিথ্যা! না, সবই অভিজ্ঞতা, শিক্ষা। এইটা আমার জীবনের সবচেয়ে স্মরণীয় দিন। এই দিনটা আমার কাছ থেকে কেউ ছিনিয়ে নিতে পারবে না।