খ্রিস্টধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন ক্রিশ্চিয়ান ব্রিটজম্যান

খ্রিস্টধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম গ্রহণের ঘোষণা দিয়েছেন জার্মানির প্রসিদ্ধ ইউটিউবার ক্রিশ্চিয়ান ব্রিটজম্যান। নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে এক ভিডিওতে তিনি মুসলিম হওয়ার বিষয়টি প্রকাশ করেন বলে গত ১১ ফেব্রুয়ারি আরবি গণমাধ্যম হুইয়্যাহ প্রেস নিশ্চিত করেছে। এদিকে তাঁর ইসলাম গ্রহণের কারণ নিয়ে পৃথক আরেকটি প্রতিবেদন তৈরি করেছে আলজাজিরা মুবাশির।

১৮ ফেব্রুয়ারির প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে ক্রিশ্চিয়ান ব্রিটজম্যান বলেন, আমি বড় হয়েছি ইউরোপে, যেখানে সব সময় ইসলামকে একটি নেতিবাচক ধর্ম হিসেবে উপস্থাপন করা হয়; যুদ্ধ, রক্তারক্তি ও সন্ত্রাসকে জুড়ে দেওয়া হয় ইসলামের সঙ্গে। তা ছাড়া এমনিতেই কোনো ধর্মের প্রতিই আমার বিশেষ অনুরাগ ছিল না। এ জন্য কখনো পরকাল ও মৃত্যু-পরবর্তী জীবনকে গুরুত্ব দিইনি। তবে শৈশবে জার্মানিতে আমার বেশ কিছু মুসলিম বেস্ট ফ্রেন্ড ছিল। তাদের বাড়ি আর আমার বাড়ি ছিল পাশাপাশি। সে সুবাদে তাদের সঙ্গে দীর্ঘ ও সুন্দর একটা সময় অতিবাহিত করার স্মৃতি আছে আমার।

একই সঙ্গে কিছু দিন আগে আমি এক বছরের কাছাকাছি সময় পাকিস্তানে কাটিয়েছি। এ সময় কয়েকজন সৎ মানুষের সঙ্গে আমার সাক্ষাৎ হয়। আমি তাঁদের থেকে ইসলাম ধর্ম, মুসলিম সভ্যতা-সংস্কৃতি ও তাঁদের জীবনাচার সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পারি। এক পর্যায়ে অনুভব করতে থাকি যে ইসলামের সঙ্গে আমার সুগভীর আত্মিক বন্ধন তৈরি হয়েছে। আমি বুঝতে পারি আমার হৃদয় ইসলামকে আরো আপন করে নিতে চায়। তার পরই আমার আজকের সিদ্ধান্ত (ইসলাম গ্রহণ)।

ক্রিশ্চিয়ান জানান, আমি জানি না কিভাবে আমার বর্তমান অনুভূতি বর্ণনা করব? তবে একটি বিশেষ প্রশান্তি অনুভব করছি। আর সবাই আমাকে যেভাবে শুভকামনা জানাচ্ছে—তাতেও আমি অভিভূত।

ক্রিশ্চিয়ান ব্রিটজম্যান নিজের ইসলাম গ্রহণ বিষয়ক ভিডিও ইউটিউবেও প্রকাশ করেন। খুব স্বল্প সময়েই তা অন্তত এক কোটিরও বেশি মানুষ দেখেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নানা প্ল্যাটফর্মে ভিডিওটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। একজন এই নওমুসলিমের কাছে মায়ের জন্য দোয়া চেয়ে লিখেছেন, আমার মা অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে, আর তুমি নিষ্পাপ, আমার মায়ের জন্য তোমার দোয়া খুবই দরকার। কারণ ইসলামে নওমুসলিমকে সদ্যভূমিষ্ট নবজাতকের সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে। তোমার দোয়া কবুল হবে, দোয়া করো।

সূত্র: আলজাজিরা মুবাশির ও হুইয়্যাহ প্রেস আরবি।