ভারতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪১ হাজার সনদের মধ্যে ৩৬ হাজারই ভুয়া

ভারতের একটি বিশ্ববিদ্যালইয়ের ৪১ হাজার সনদের মধ্যে ৩৬ হাজারই ভুয়া সনদ বিক্রি করেছে বলে প্রমাণ পেয়েছে বিশেষ তদন্তকারী দল। এ ঘটনাটি ঘটেছে হিমাচল প্রদেশের সোলান শহরের মানব ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে।

জানা যায়, গত ১১ বছরে বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রায় ৪১ হাজার সনদ ইস্যু করেছে। এর মধ্যে মাত্র হাজার পাঁচেক আসল প্রমাণিত হয়েছে, বাকি ৩৬ হাজারই ভুয়া।

দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, মানব ভারতী ট্রাস্টের অধীনে পরিচালিত হতো বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়টি। এর চেয়ারম্যান রাজ কুমার রানা, তার স্ত্রী অশোনী কান্বার, মেয়ে আইনা রানা (দু’জনেই ট্রাস্টি) এবং ছেলে বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া রয়েছেন। তাদের ভারতে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছে পুলিশ।

হিমাচল পুলিশের মহাপরিচালক সঞ্জয় কুন্ডু গণমাধ্যমকে বলেছেন, এ রাজ্যে এটাই প্রথম মানিলন্ডারিংয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জড়িত থাকার ঘটনা। তিনি জানিয়েছেন, ভুয়া সার্টিফিকেট বিক্রি করে রানা ও তার পরিবার অন্তত ৩৮৭ কোটি রুপি আয় করেছে।

এ ঘটনায় মানব ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভুয়া সার্টিফিকেট কেলেঙ্কারির ঘটনায় ধরমপুর থানায় ইতোমধ্যে অন্তত তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া