মিয়ানমারে অভ্যুত্থান অপরিহার্য ছিল: দাবি সেনাপ্রধানের

মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থান অপরিহার্য ছিল বলে দাবি করেছে দেশটির সেনাপ্রধান।
মঙ্গলবার (৩ ফেব্রুয়ারি) এমনটাই দাবি করেছেন মিয়ানমারের সেনাপ্রধান জেনারেল মিং অং হ্লাং। দেশটিতে সেনা অভ্যুত্থানের পর আন্তর্জাতিক চাপের মুখে এ কথা বললেন তিনি।

সেনা অভ্যুত্থানের পর এই প্রথম তিনি মুখ খুলেছেন। বললেন, ভোট জালিয়াতির অভিযোগের পর সরকার সাড়া দিতে ব্যর্থ হওয়ায় আইন অনুসারে সামরিক বাহিনী ক্ষমতার নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করেছে।

নিজের ফেসবুক পেজে এই জেনারেল বলেন, অনেক অনুরোধের পর ক্ষমতার নিয়ন্ত্রণগ্রহণ অপরিহার্য ছিল। আর সে কারণেই আমাদের এই পথ বেছে নিতে হয়েছে।

উল্লেখ্য, গেল বছর নভেম্বরের নির্বাচনে জালিয়াতি নিয়ে সু চি-র সরকার এবং সেনাবাহিনীর মধ্যে একটা টানাপড়েন চলছিল। ওই নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী হয় সু চি-র দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসি(এনএলডি)। সোমবার সংসদের অধিবেশন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই সেনা অভ্যুত্থান ঘটে।
সোমবার মিয়ানমারে হঠাৎ দেশের ক্ষমতা দখলে নেয় সেনা। অং সান সু চি এবং এনএলডি-র বহু নেতাকে আটক করে তারা।