সাকিবের কাছে আরও দেশাত্মবোধ আশা করেছিলামঃ রকিবুল

উইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের টেস্ট সিরিজ হোয়াইট ওয়াসের রেশ কাটতে না কাটতেই ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) নিলামে মজেছেন দেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা। কোন তারকা কত দামে কোন ফ্রাঞ্চাইজিতে গেলেন তা নিয়ে আলোচনায় মেতেছে ক্রিকেটবিশ্ব।

তবে এসব ছাপিয়ে শ্রীলংকা সফর বাদ দিয়ে অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের আইপিএলে খেলার অনুমোদনের বিষয়টি আলোচনার শীর্ষে উঠেছে। গতকাল শুক্রবার থেকে সাকিবের এই আইপিএল প্রেমের বিষয়ে সরগরম দেশের ক্রিকেটাঙ্গন। সাকিবের এ সিদ্ধান্তে দেশজুড়ে সমালোচনার ঝড় বইছে।

ক্রিকেটবোদ্ধাদের মতে, সবার আগে জাতীয় দলকেই প্রাধান্য দেয়া উচিত ছিল এক সময়ের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

গণমাধ্যমকে রকিবুল হাসান বলেন, সাকিব শ্রীলংকা যাচ্ছে না, এটা তার ব্যক্তিগত কারণ নয়। এ সিদ্ধান্তটা আগেই হয়েছিল। আইপিএল এবং ক্রিকেট বোর্ড তাকে চিন্তাভাবনা করে এনওসি (নো অবজেকশন সার্টিফিকেট) দিয়েছে। আইপিএল অনেক টাকার ব্যাপার। আমি মনে করি, সাকিবের জায়গা থেকে জাতীয়তাবোধটা আরেকটু বেশি দেখানো হলে বিষয়টা ভালো হতো।

এরপর সাকিবের পক্ষ নিয়ে জাতীয় দলের সাবেক তারকা রকিবুল হাসান বলেন, দেখুন, সব খেলোয়াড়ের নিজস্ব চিন্তাভাবনা থাকে। একজন খেলোয়াড়ের ক্যারিয়ার ১০ থেকে ১৫ বছর। এ সময়ের মধ্যেই সে নিজের আর্থিক নিশ্চয়তা নিশ্চিত করে নেয়। সেদিক থেকে চিন্তা করলে সাকিব ঠিকই করেছে।

এরপর সাকিবের অনুপস্থিতিতে জাতীয় দলের বড় ধরনের ক্ষতি কথা স্বীকার করেন রকিবুল বলেন, শ্রীলঙ্কা সফরে টেস্ট সিরিজে সাকিবের না থাকায় দলের ভারসাম্য নষ্ট হবে নিশ্চিত। জাতীয় দলের ক্ষতি হবে। আর জাতীয় দলের ক্ষতি মানে দেশের ক্ষতি। সেদিক থেকে আমি মনে করি, সাকিবের কাছে আরও দেশাত্মবোধ আশা করেছিলাম।

এর আগে, নিউজিল্যান্ড সফরে থাকছেন না সাকিব। পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে সে সময় সন্তানসম্ভাবা স্ত্রীর পাশে থাকবেন। গত বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত আইপিএল নিলামে ৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে সাকিবকে দলে ভেড়ায় কলকাতা নাইট রাইডার্স। পরদিনই সাকিবকে শ্রীলংকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলতে না চাওয়ার ছাড়পত্র দেয় বিসিবি। এ বিষয়টি নিয়ে দেশের ক্রীড়াঙ্গন বেশ উত্তাল।