ছেলের প্রেমিকাকে সারারাত পাহারা দিলেন প্রেমিকের বাবা

মেহেরপুর জেলার গাংনী উপজেলার ছাতিয়ান গ্রামে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান করছে এক প্রেমিকা। এ খবর পেয়ে প্রেমিক পালিয়ে যাওয়ায় আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছেন প্রেমিকা। তারপর থেকে এলাকায় চলছে বিরূপ সমালোচনা।

প্রেমিকের বাবা বলেন, ওই মেয়ে গতকাল বুধবার বিকেলে তার বাড়িতে এসে ওঠে। ছেলে আকাশের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক আছে দাবি করে বিয়ের কথা বলে। বিষয়টি আমরা কিছুই জানতাম না বিধায় বিয়ের ব্যাপারটি মেনে নিতে পারছিলাম না। এ সময় মেয়েটির আত্মহত্যার হুমকি দেয়। তাই আত্মহত্যার ঘটনায় আমরা ফেঁসে যাতি পারি এই মনে করে সারারাত তাকে পাহারা দিয়েছি।

প্রেমিকের বাবা আরও বলেন, এভাবে বাড়িতে এসে একটি মেয়ে উপদ্রব চালালেও আইনি কোনও সহযোগিতা পাচ্ছি না। বিষয়টি নিয়ে আমরা পারিবারিকভাবে খুব বিব্রত ও আতঙ্কগ্রস্ত অবস্থায় আছি।

ওই মেয়ের ভাষ্য, তার সঙ্গে ওই যুবকের প্রেমের সম্পর্ক এক বছর ধরে। তিনি মোবাইল ফোনে সব সময় তার বোন, মা-বাবার সঙ্গে কথা বলতো। আজ থেকে ১০ দিন আগে আমাদের বাড়িতে গিয়েছিল সে। পাড়ার লোকজন আমাদের ধরে ফেলে। পরে গ্রামবাসী এবং আমাদের উভয়ের পরিবারকে বিয়ের সম্মতি দিয়ে ওই যুবক (প্রেমিক) চলে যায়। এরপর থেকে আকাশ তার ফোন বন্ধ রেখেছে। তাই আমি চলে এসেছি তার বাড়িতে। এখানে বিয়ে না হলে আত্মহত্যা ছাড়া তারা কোনও উপায় থাকবে না বলেও তিনি জানান।

ওই যুবকের বাবা আরও বলেন, মেয়েকে বাড়িতে আসতে দেখেই তার ছেলে পালিয়ে গেছে। আজ দুদিন ধরে তার কোনও খোঁজ নেই।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলুর রহমান জানান, বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিকে বলে সুরাহা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তারপরও সমাধান না হলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।