নিউজিল্যান্ডেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে প্রসংশায় ভাসালেন তামিম

দেশে উসৎবমুখর পরিবেশে করোনাভাইরাসের গণ টিকা নেওয়ার মধ্যে সকল শ্রেণি-পেশার নারী-পুরুষ ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। টিকা দিয়ে তারা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন এবং উন্নত দেশের সঙ্গে সঙ্গে এদেশেও স্বল্প সময়ে টিকার ব্যবস্থা করায় দেশে থাকতেই সরকারের প্রশংসা করেছিলেন টাইগার ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। এবার নিউজিল্যান্ডের গণমাধ্যমেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উচ্ছসিত প্রসংশা করলেন টাইগার কাপ্তান।

নিউজিল্যান্ড যাওয়ার আগে তামিমসহ জাতীয় দলের বেশ কয়েকজন করোনার টিকা নিয়েছিলেন। বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের টিকা নেওয়ার খবর আলোচিত হয় নিউজিল্যান্ডেও।

সেখানে গিয়ে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষ করার পর বুধবার স্থানীয় গণমাধ্যমের সামনে এসেছিলেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। নিউজিল্যান্ডের গণমাধ্যমে টিকা নেওয়ার অভিজ্ঞতার কথা জানতে চাইলে তামিম বলেন, জাতি হিসেবে বাংলাদেশ এই ব্যাপারে গর্ব করার মতো কাজ করছে। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তামিম।

তামিম ইকবাল জানান, এটাই (টিকা নিয়ে চলা) ভবিষ্যৎ আসলে। আপনাকে এটা (টিকা) নিতেই হবে একটা সময়ে গিয়ে। আমাদের দেশ এই জায়গায় খুব ভাল করেছে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী এই ব্যাপারে খুব অগ্রগামী ছিলেন। জাতীয় ক্রিকেটার হিসেবে আমরা ভাগ্যবান। কেবল ক্রিকেটাররাই নয় সাধারণ মানুষজনও টিকা নিতে পারছেন এবং বড় কথা হলো সেটা বিনামূল্যে পাচ্ছেন।

টিকা নেওয়া নিয়ে বিশ্বের অনেক দেশের মানুষ আছে দ্বিধায়। আবার অনেক দেশে টিকা নিতে চাইলেও পর্যাপ্ত টিকার অভাব আছে। তামিম জানান টিকা নিয়ে তার নিজের কোন সমস্যা হয়নি। বাকিরাও নেবেন, আমি আশা করি সব দেশই তা করবে আগে বা করবে। আমি ব্যক্তিগতভাবে নিয়েছি টিকা। কোন সমস্যা হয়নি।

উল্লেখ্য, গত ৭ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে টিকা দেওয়া শুরু হয়। এখন পর্যন্ত ৪০ লাখের বেশি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। ৪০ বছরের বেশি যেকেউ টিকা নিতে পারছেন। এছাড়া পেশার ক্যাটাগরিতে ৪০ বছরের নিচেও বিপুল সংখ্যক মানুষ টিকা নিচ্ছেন।