মামলা করতে আদালতে নির্মাতা ঝন্টু, শুটিংয়ে দীঘি

তুমি আছো তুমি নেই’ ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় নায়িকা হিসেবে অভিষেক হচ্ছে দীঘির। আগামী ১২ মার্চ ছবি মুক্তি পাবে। অন্যদিকে দীঘি এই সময়টাতে উত্তরার দিয়া বাড়ি এলাকায় ওয়েব ফিল্ম শেষ চিঠির শুটিং করছেন। আদালত থেকেই দেলোয়ার জাহান ঝন্টু ফোনে এ রিপোর্টারকে জানান, তিনি দীঘির বিরুদ্ধে মামলা করবেনই।

আজ ১০ মার্চ বুধবার দুপুরে ছবির পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু আদালতে আইনজীবীর সঙ্গে দীঘির বিরুদ্ধে মামলা করার জন্য আলোচনায় বসেছেন।

দীঘি বলেন, আমি ভুলের জন্য আংকেলের কাছে ক্ষমা চেয়েছি, সরি বলেছি।’ তিনি বলেন, ‘ইউটিউব চ্যানেলটি আমার সাক্ষাৎকার নিলেও পুরো ভিডিওটি প্রচার করেনি। যদি প্রচার করা হতো তাহলে হয়তো জটিলতা তৈরি হতো না।

প্রবীণ নির্মাতা দেলোয়ার জাহান ঝন্টু অভিযোগ করেন, ইউটিউব চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে দীঘি ছবিটি সম্পর্কে নানা সমালোচনামূলক ও নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন, যা ছবিটিকে ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করবে বলে আমি মনে করি। সাক্ষাৎকারে দীঘি বলেছেন, ছবিটি ভালো হয়নি। তিনি ভালো অভিনয় করেননি। ছবিটি দর্শক দেখবে না ইত্যাদি। এসব নিয়েই ক্ষিপ্ত দেলোয়ার জাহান ঝন্টু বলেন, ‘দীঘি আমাকে অপমান করেছে।

দেলোয়ার জাহান ঝন্টু বলেন, আমার জীবনে এই প্রথম দেখলাম কোনো শিল্পী নিজের অভিনীত ছবি সম্পর্কে নেতিবাচক কথা বলেছে। এজন্য আমি খুব অপমানিত বোধ করেছি। আমি ওকে ছাড়ব না।

দীঘি বলেন, আমার বাবা ছবির প্রযোজক এবং ঝন্টু আংকেলকে অনেকবার ফোন করেছেন। তারা কেউ ফোনও রিসিভ করেন না। আমি কি করতে পারি? তারা যেহেতু কোনো প্রকার রেসপন্স করছেন না, সেহেতু মামলা হলে আমাকে তো মোকাবেলা করতেই হবে।