স্বপ্নের পদ্মা সেতুর পূর্ণাঙ্গ রূপ দেখলেন শেখ হাসিনা

পদ্মা সেতু বাংলাদেশের পদ্মা নদীর উপর নির্মাণাধীন একটি বহুমুখী সড়ক ও রেল সেতু। এর মাধ্যমে মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ের সাথে শরিয়তপুর ও মাদারীপুর জেলা যুক্ত হবে। ফলে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অংশের সাথে উত্তর-পূর্ব অংশের সংযোগ ঘটবে। স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সঙ্গে মিশে আছে বাংলাদেশের মানুষের আবেগ, ভালোবাসা এবং মর্যাদা।

আজ শনিবার (২৭ মার্চ) দুপুরে গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়া থেকে ঢাকা ফেরার পথে প্রথমবারের মতো স্বপ্নের পদ্মা সেতুর মূল কাঠামোর পূর্ণাঙ্গ রূপ বাস্তবে দেখলেন বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা। হেলিকপ্টার থেকে পদ্মা সেতুর ভিডিও করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তার পাশে ছিলেন ছোট বোন শেখ রেহানা।

গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা জানান সফররত ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। টুঙ্গীপাড়ায় নরেন্দ্র মোদীকে স্বাগত জানাতে সেখানে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার ছোট বোন শেখ রেহানা।

গত বছর ১০ ডিসেম্বর সর্বশেষ স্প্যান বসানোর মধ্যে দিয়ে পদ্মা সেতুর মূল কাঠামোর পূর্ণাঙ্গ রূপ পেলেও করোনা পরিস্থিতির কারণে বাস্তবে পদ্মা সেতু দেখার সুযোগ পাননি শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব হাসান জাহিদ তুষার বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর ঐতিহাসিক সময়ে বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা এক সঙ্গে প্রথমবারের মতো মূল পদ্মা সেতুর পূর্ণাঙ্গ রূপ সরাসরি দেখলেন।

এর আগে সর্বশেষ গেল বছরের ১৭ মার্চ টুঙ্গীপাড়া আসা-যাওয়ার পথে হেলিকপ্টার থেকে সরাসরি পদ্মা সেতু দেখেন প্রধানমন্ত্রী। তখনো পদ্মা সেতু পূর্ণাঙ্গ কাঠামো নির্মাণ কাজ শেষ হয়নি।