২ বছরের মধ্যে আকবরদের জাতীয় দলের বিবেচনায় আনবে বিসিবি

বাংলাদেশ জাতীয় দলের আঁতুড়ঘর ধরা হয় বিসিবির এইচপি ইউনিটকে। এখান থেকেই জাতীয় দলের জন্য তৈরি করা হয় তরুণ প্রতিভাবান ক্রিকেটারদের। করোনার সংক্রমণের কারণে গত বছর এক প্রকার বসেই ছিল বিসিবির এইচপি দল।

যদিও চলতি বছরের শুরু থেকেই খেলার মধ্যে রয়েছেন, আকবর আলী, মাহমুদুল হাসান জয়রা। বিসিবির প্রেসিডেন্টস কাপ দিয়ে ব্যস্ততা শুরু এইচপির। এরপর তারা খেলেছেন বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপেও। বর্তমানে তারা ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন আয়ারল্যান্ড উলভসের বিপক্ষে পূর্ণাঙ্গ সিরিজে।

আইরিশদের বিপক্ষে সিরিজ থেকে জাতীয় দলের জন্য বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারকে প্রস্তুত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। তাঁর দাবি, আগামী দুই-এক বছরের কয়েকজন তরুণ ক্রিকেটারকে জাতীয় দলের জন্য ভাবনায় আনার পরিকল্পনা চলছে।

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশ ইমার্জিং দলে ইয়াসির আলী রাব্বি-সাইফ হাসানদের ছাড়াও এই দলে রয়েছেন যুব বিশ্বকাপ জয়ী দলের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। আইরিশদের বিপক্ষে চারদিনের ম্যাচে দাপুটে জয় পেয়েছেন আকবর -জয়রা।

চারদিনের ওই ম্যাচে বল হাতে আলো ছড়িয়েছেন স্পিনার তানভির ইসলাম। প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নেয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে নিয়েছেন আরও ৮ উইকেট তানভির। বাঁহাতি এই স্পিনারের ঘূর্ণি মাঠে বসে দেখেছিলেন নান্নু। সেখান থেকে কয়েকজন পারফর্মার পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচক।

এ প্রসঙ্গে নান্নু বলেন, আমরা একটা চারদিনের ম্যাচ খেলেছি ওদের নিয়ে। গত এক বছর আমরা এইচপির ক্যাম্প, ম্যাচ আয়োজন সেভাবে করতে পারিনি। খুবই অল্প সময়ের মধ্যে দলটা তৈরি করা হয়েছে। চারদিনের ম্যাচে ওরা বেশ ভালো ক্রিকেট খেলেছে। খুব ভালো কিছু পারফর্মার আমরা ওখানে পেয়েছি।

নান্নু আরও বলেন, আমাদের এইচপির কার্যক্রম হল আগামীদিনের জন্য খেলোয়াড় তৈরি করা। সে হিসেবেই আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। আয়ারল্যান্ডের সাথে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি আছে। লাল বলের খেলা শেষ এখন সাদা বলে খেলা। এখান থেকে আমরা কিছু প্লেয়ারকে এমনভাবে তৈরি করছি যাতে এক থেকে দুই বছরের মধ্যে জাতীয় দলের জন্য বিবেচিত হতে পারে।