গোপনে বিয়ে করা যায় না, বিয়ে করতে হয় অ্যানাউন্স করে: আজহারী

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁর রয়েল রিসোর্টে গতকাল শনিবার হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে অবরুদ্ধ করে রাখার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার মামুনুল হককে এক নারীসহ আটক করা হয়েছে বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। মামুনুল হককে আটকের পর কয়েক হাজার হেফাজতকর্মী ওই রিসোর্টে হামলা চালিয়ে মাওলানা মামুনুলকে মুক্ত করে নিয়ে যান। এরপর রিসোর্টে ভাঙচুরও করেন হেফাজতকর্মীরা।

এই ঘটনায় মামুনুল হক ওই নারীকে নিজের বিয়ে করা দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে পরিচয় দিলেও বিষয়টির পক্ষে বিপক্ষে বিপুল জনমত তৈরি হয়। একপক্ষ বলছে মামুনুলের বিয়ে পক্ষে আরেক পক্ষ মানতে নারাজ। এরই মধ্যে বিয়ের ধরন সম্পর্কেও প্রশ্ন তুলেছেন। শুধু তাই নয় বিয়ের ধরন নিয়ে নানা তত্ত্ব ও উপাত্ত্বও হাজির করছেন। এরইমধ্যে পাওয়া গেল মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর বয়ান।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে আজহারী বলছেন, বিয়ের ঘোষণায় ব্যান্ড পার্টি করতে বলেছেন বিশ্ব নবী (সঃ)। কারণ বিয়ে একজন নারী পুরুষের যে সম্পর্ক হয়, জেনা ও ব্যভিচারে একই সম্পর্ক হয়। পার্থক্য হচ্ছে এটার সামাজিক স্বীকৃতি আছে, জেনার স্বীকৃতি নাই। এজন্য বিয়ে গোপন করে করা যায় না। এটা অ্যানাউন্স করে করতে হয়।

ইসলামের খলিফাদের জীবনী প্রসঙ্গ টেনে আজহারী জানান, ওমর ফারুক (রঃ) যখন মদিনার খলিফা বলতেন লুকিয়ে লুকিয়ে যদি কেউ বিয়ে করে তাদের প্রতিবেশিরা যদি তাদের দাম্পত্য জীবন সম্পর্কে না জানে তাহলে আমি তাদের দুইজনকে জেনার শাস্তি দেব।

আজহারী বলেন, লুকিয়ে বিয়ে করা যায় না, সবাইকে জানিয়ে শুনিয়ে অ্যানাউন্স করে বিয়ে করতে হয়। এজন্য ইসলাম শুধু হারাম বলে জিকির করে নাই। যেখানেই হারাম তার বিপরীতে ইসলামে হালালের বিকল্প দিয়েছে।