বস্তি নয়, করোনায় আক্রান্তের ৯০ শতাংশই বহুতলের বাসিন্দা

ভারতের মুম্বাইয়ের করোনা আক্রান্তের সিংহভাগই বহুতল ভবনের বাসিন্দা। করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশটির বাণিজ্য নগরী যখন বেসামাল তখনও করোনা আক্রান্তের প্রবণতা অব্যহত রয়েছে।

সম্প্রতি বৃহন্মুম্বই পৌর কর্পোরেশনের (বিএমসি) পক্ষে করোনা আক্রান্তদের ওপর যে তথ্যপ্রকাশ করেছে সেখানে দেখা গেছে, মুম্বাইয়ের সক্রিয় রোগীদের ৯০ শতাংশ বহুতলের বাসিন্দা। মোট সক্রিয় রোগীর মাত্র ১০ শতাংশ থাকেন বস্তি এলাকায়।

বিএমসি এর তথ্যানুযায়ী, মুম্বইয়ে ৮৭ হাজার ৪৪৩ জন সক্রিয় রোগীর মধ্যে ৭৯ হাজার ৩২ জনই বহুতল বা আবাসনের বাসিন্দা। এছাড়া আন্ধেরি, যোগেশ্বরী, মালাবার হিল, গ্রান্ট রোড, পারেল এলাকায় রয়েছে সব থেকে বেশি মাইক্রোকন্টেনমেন্ট জোন। এই সব এলাকার অধিকাংশ মানুষই বহুতলের বাসিন্দা।

গত বছর করোনার প্রথম ঢেউ যখন এসেছিল তখন মুম্বইয়ের অবস্থাটা এ রকম ছিল না। ২০২০ সালের জুনে মুম্বইয়ের কোভিড আক্রান্তের দুই তৃতীয়াংশই ছিল বস্তি এবং‌ ঘিঞ্জি এলাকার বাসিন্দা। এখন সেখানকার চিত্রটা অনেকটাই আলাদা।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।