ভারতকে অলিম্পিক খেলার অনুমতি দিল বিসিসিআই

অলিম্পিক ও কমনওয়েলথ গেমসে ক্রিকেট দল পাঠানোর অনুমতি দিয়েছে বিসিসিআই। ভারতীয় নারী দল ও পুরুষ দল, উভয় দলের জন্যই এই অনুমতি দেওয়া হয়েছে। ফলে আবারও অলিম্পিকে উন্মুক্ত হতে যাচ্ছে ক্রিকেটের দুয়ার।

১৯০০ সালের অলিম্পিক আসরটিতে ক্রিকেট অন্তর্ভুক্ত ছিল । কিন্তু তারপরে এই খেলাটি অলিম্পিক থেকে বাদ পড়ে যায়। গত ১২০ বছরে বিভিন্ন সময়ে অলিম্পিকে ক্রিকেট যুক্ত করার দাবি ও প্রস্তাব উঠানো হলেও শেষ পর্যন্ত সেটা আর বাস্তবায়ন হয়নি। তবে ভারতের এই সিদ্ধান্তের পরে এবার আশার আলোই দেখতে যাচ্ছে অলিম্পিকে ক্রিকেট।

গতকাল শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ক্রিকেটের বিশ্বায়নে ভূমিকা রাখতে তারা আগ্রহী এইজন্যই তাদের দলকে এই দুইটি আসরে খেলার অনুমতি দিয়েছে।

বিসিসিআইয়ের এই অনুমতির ফলে আগামী বছর ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে আয়োজিত হতে যাওয়া কমনওয়েলথ গেমসে অংশ নিবে ভারতীয় নারী ক্রিকেট দল। ভারতীয় পুরুষ ক্রিকেট দল পেয়েছে ২০২৮ সালে লস অ্যাঞ্জেলস অলিম্পিকে অংশগ্রহণের সুযোগ। তবে সেইজন্য লস অ্যাঞ্জেলস অলিম্পিকে ক্রিকেটের অন্তর্ভুক্তি আগে নিশ্চিত করতে হবে আইসিসিকে।

অলিম্পিকে অংশগ্রহণ করার জন্য প্রতিটি খেলোয়াড়কে ডোপ টেস্টের মধ্যে দিয়ে যেতে। কিন্তু বিসিসিআই অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির অধীনে যেতে রাজি ছিল না বলেই এতদিন তাদের সিদ্ধান্ত ঝুলে ছিল। সর্বশেষ বৈঠকে তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির অধীনে যাবে এবং অলিম্পিকেও খেলবে।