ভালো থাকবেন লিখে সাংবাদিক সিয়াম নিখোঁজ

সাংবাদিক সিয়াম সারোয়ার জামিলের খোঁজ পাচ্ছে না তার পরিবার। এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন তার স্ত্রী।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর পশ্চিম নাখাল পাড়ার বড় বোনের বাসা থেকে বের হওয়ার পর থেকেই নিখোঁজ তিনি। এরপর থেকে বন্ধ তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) বিকেলে সাংবাদিক সিয়াম সারোয়ার জামিলের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় জিডি করার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

সিয়াম নেপালের একটি সংবাদমাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যুরোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক এবং যুব ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক।

নিখোঁজ হওয়ার তিন ঘণ্টা আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দেন সিয়াম। যেখানে তিনি লিখেন, ‘পৃথিবীটা ভীষণ সুন্দর। আর মানুষও। সবাইকে সালাম। ভালো থাকবেন।’

তেজগাঁও থানার কর্তব্যরত কর্মকর্তা (ডিউটি অফিসার) উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাসিরউদ্দীন বলেন, সিয়াম সারোয়ার জামিলের সন্ধান চেয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে জিডি করা হয়েছে। বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বিকেলে তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) মতলুবুর রহমান বলেন, আমি সিয়ামের বাসায় যাচ্ছি। বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে তেজগাঁও থানায় জিডিতে সিয়ামের স্ত্রী শারমীন সুলতানা উল্লেখ করেন, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে রাজধানী বনানীর বিটিসিএল কলোনীর বাসা থেকে বের হয়ে পশ্চিম নাখাল পাড়া বড়বোনের বাসায় যান সিয়াম। সেখান থেকে সকাল ১০টার দিকে বের হন। তারপর আর বাসায় ফেরেননি তিনি।

বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভির অনলাইনে এক সময় কাজ করা সিয়াম বর্তমানে নেপালের কাঠমাণ্ডু ট্রিবিউন নামে একটি দৈনিকের ঢাকা ব্যুরোর জৈষ্ঠ প্রতিবেদক। বামঘেঁষা রাজনীতির সঙ্গে জড়িত সিয়াম ঢাকা জেলা যুব ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি।

এদিকে, সিয়ামের দ্রুত সন্ধান চেয়ে বিবৃতি দিয়েছে ঢাকা জেলা ছাত্র ইউনিয়ন। জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মনির হোসেন অনিক ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক খালিদ রাব্বি রেদোয়ান এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে বাসা থেকে বের হয়ে তিনি নিখোঁজ হন। এরপর থেকে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে।

এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে নেতৃবৃন্দ জানান, প্রগতিশীল ছাত্র রাজনীতি শেষ করে সাংবাদিক সিয়াম দীর্ঘদিন ধরেই সাংবাদিকতা করছেন। তার নিখোঁজের পেছনে বিশেষ কোনো কারণ আছে কি-না তা খুঁজে বের করার অনুরোধ জানিয়েছে সংগঠনটি।