যেসব শর্ত মানতে হবে গণপরিবহনে

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে গত সোমবার (৫ এপ্রিল) থেকে এক সপ্তাহের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার। এর আওতায় গণপরিবহন চলাচল বন্ধ করা হলেও বুধবার (৭ এপ্রিল) সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সিটি করপোরেশন এলাকাগুলোতে গণপরিবহন চলাচল করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এরজন্য গণপরিবহনগুলোকে কিছু শর্ত মেনে চলতে হবে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) গণপরিবহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ বিষয়ক জরুরি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে মঙ্গলবার। তাতে সিটি করপোরেশন এলাকায় গণপরিবহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা শিথিল প্রসঙ্গে কিছু শর্তের বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে।

শর্তগুলো হলো-

• সিটি করপোরেশন এলাকাধীন সড়কে ভোর ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ধারণক্ষমতার অর্ধেক আসন খালি রেখে গণপরিবহন চলাচল করতে পারবে।

• ট্রিপের শুরু ও শেষে জীবাণুনাশক দিয়ে গাড়ি জীবাণুমুক্ত করতে হবে।

• পরিবহন সংশ্লিষ্ট মোটরযান চালক, অন্যান্য শ্রমিক-কর্মচারী ও যাত্রীদের বাধ্যতামূলক মাস্ক পরিধান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।

• কোনোভাবেই সমন্বয়কৃত ভাড়ার অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা যাবে না।

• করোনা সংক্রমণ বিস্তার রোধে সরকারের অন্যান্য নির্দেশাবলী যথাযথভাবে প্রতিপালন করতে হবে।

• পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত দূরপাল্লার গণপরিবহন চলাচল যথারীতি বন্ধ থাকবে।