রমজানে ১০ টাকা কেজিতে দুধ, প্রশংসায় ভাসছেন এরশাদ

কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতপুরের সন্তান ও বাংলাদেশ মিলস্কেল রি-প্রসেস অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও জেসি অ্যাগ্রো ফার্মের চেয়ারম্যান শিল্পপতি এরশাদ উদ্দিন ব্যতিক্রম ধর্মী উদ্যোগ নেন। রমজানের প্রথম দিন থেকে ১০ টাকা কেজি ধরে শুরু হওয়া উদ্যোটি শেষ রমজান পর্যন্ত বহাল থাকবে। রমজান মাস এলেই যেখানে ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট তৈরি করে জিনিসপত্রের দাম বাড়িয়ে দেয় সেখানে পুরো রমজান মাসব্যাপী ১০ টাকা কেজি ধরে দুধ বিক্রির উদ্যোগে এলাকার সকলের কাছে প্রশংসিত হয়েছেন তিনি।

এলাকাবাসী জানান, নিয়ামতপুরের রৌহা গ্রামে জেসি অ্যাগ্রো ফার্ম নামে এরশাদ উদ্দিনের একটি গরুর খামার রয়েছে। সে খামারের ৫০ ভাগ দুধ তিনি রমজান উপলক্ষে ১০ টাকা ধরে বিক্রি করে দিচ্ছেন। প্রথম রমজান থেকে ২৫ কেজি ১০ টাকা ধরে ২৫ পরিবারের কাছে বিক্রি মাধ্যমে কার্যক্রম শুরু করেন। যা পর্যাক্রমে চাহিদা অনুযায়ী বাড়ানো হয়। তবে সষ্ঠু বণ্টনের জন্য এক পরিবারকে একদিনে এক কেজির দেওয়া হয় না। বর্তমানে গ্রামের বাজারগুলোতেও এক কেজি দুধের দাম ৮০ থেকে ৯০ টাকা। সেখানে ১০ টাকা ধরর দুধ বিক্রি করে বরাবরের মত মানবিক কাজের জন্য প্রশংসিত হচ্ছেন।

শিল্পপতি এরশাদ উদ্দিন বলেন, রমজান মাসে সবারই কমবেশী দুধের চাহিদা থাকে। বিশেষ করে সাহরিতে সবাই দুধ খেতে চায়। এসময় বাজারে দুধের দামও বেড়ে যায়। তাই যারা বাজার থেকে নিয়মিত দুধ কিনে খেতে পারছেন না, তাদের জন্য ১০ টাকা কেজি ধরে ফার্মের ৫০ ভাগ দুধ বিক্রি করছি।