স্বাস্থ্যবিধি না মেনে গাদাগাদি করে বাড়ি ফিরছেন যাত্রীরা

দেশে মহামারি করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ হঠাৎ করে বেড়ে যাওয়ায় তা নিয়ন্ত্রণে সরকার পরিবহন খাতের জন্য যে নির্দেশনা দিয়েছে, তা প্রতিপালনে দেখা যাচ্ছে শৈথিল্য। অথচ স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন করা হবে এমন শর্তে বাস ও লঞ্চের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে।

গত ২৯ মার্চ সরকারের জারি করা ১৮ নির্দেশনার মধ্যে পরিবহন খাতে পালনীয় হিসেবে বলা হয়েছে, গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে এবং ধারণক্ষমতার অর্ধেকের বেশি যাত্রী পরিবহন করা যাবে না। গতকাল রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা, সদরঘাট, কমলাপুর, গাবতলী বাসটার্মিনাল, মহাখালী বাসটার্মিনালসহ নগরীর বিভিন্ন সড়ক ঘুরে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের করুণ চিত্র দেখা গেছে।

রাজধানীর বিমানবন্দর রেল স্টেশনে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড় লেগেছে। হুড়োহুড়ি করে ট্রেনে উঠছেন যাত্রীরা। লোকাল ট্রেনগুলোতে শোভন চেয়ারে এক সিটে একজন করে বসার কথা থাকলেও তিন থেকে চারজন করে বসছেন। তাদের কেউই স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না।

গণপরিবহনে ধারণক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী নিতে বলা হলেও সকালে ও বিকেলে পরিবহন শ্রমিকরা অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন করেছেন। ভাড়া নেয়া হচ্ছে ৬০ ভাগ বেশি। শতভাগ মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত হয়নি এখনো।