ইসরাইলের মধ্যভাগে ভারী রকেট হামলা হামাসের, হতাহত বাড়ছে

ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ব্যাপক বিমান হামলা চালাচ্ছে ইসরাইল। পাশাপাশি হামাসের কয়েকটি ভূগর্ভস্থ সুড়ঙ্গে হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী। মধ্যরাত থেকে হামলা বাড়াতে থাকে ইসরাইল। এরই প্রতিশোধ নিতে ইসরাইলের প্রাণ কেন্দ্রে ব্যাপক রকেট হামলা চালাচ্ছে হামাসসহ গাজার ইসলামিক দলগুলো।

আজ বুধবার (১৯ মে) ইসরাইলি সংবাদ মাধ্যম হারেৎজ জানিয়েছে, ইসরাইলের কেন্দ্রস্থলসহ বেশ কয়েকটি শহরে ব্যাপক রকেট হামলা চালাচ্ছে হামাস। ইতোমধ্যে ধনী পরিবারগুলো সীমান্তবর্তী এলাকা ছেড়েছে।

সংবাদ মাধ্যমটি বলছে, দক্ষিণ ইসরাইল ও দেশটির মূল কেন্দ্রে রকেট হামলা চালানো হচ্ছে। আশদোদ শহরে ব্যাপক হামলা চালানো হয়েছে। ইসরাইলি বিমান বাহিনীর ঘাঁটিকে হামলার লক্ষ্যবস্তু বানানো হয়েছে বলে জানানো হয়।

গাজা সীমান্তে ইসরাইলি অংশে ৭ টি রকেট এসে পড়ে। এতে বেশ কিছু সম্পত্তির ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তবে হতাহতের খবর জানা যায়নি। হামাসের উপর্যুপরি রকেট হামলায় এ পর্যন্ত ১২ ইসরাইলি নিহত হয়েছেন। এখন পর্যন্ত ৩৩৩ জন আহত হয়ে হাসপাতলে চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ্যে রকেট হামলায় আহত হয়েছেন ১১৪ জন। এদের মধ্যে সাতজনের অবস্থা গুরুতর।

ইসরাইলি সংবাদ মাধ্যমটি জানায় এশকল অঞ্চলে রকেট হামলা হয়েছে। এতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তবে হতাহতের বিষয়টি জানা যায়নি। এ ছাড়া ইসরাইলের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর আশখেলনে রকেট হামলা হয়েছে। সেখানে সতর্কতামূলক সাইরেনের শব্দ শোনা গেছে।

ইসরাইলি সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, মঙ্গলবার রাতে বিমান হামলা চালিয়ে হামাসের সাড়ে সাত মাইল দীর্ঘ সুড়ঙ্গ ধ্বংস করা হয়েছে। এ ছাড়া হামাসের নিয়ন্ত্রণের অবকাঠামো ধ্বংস করা হয়। এ সময় হামাস ও ইসলামিক জিহাদের ১০ নেতাকে হত্যা করা হয়েছে।