ঘূর্ণিঝড় ইয়াস: হাঁটুজলে সাঁতার কাটিয়ে সাক্ষাৎকার, ভারতীয় টিভির স্ট্যান্টবাজি

প্রবল ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের আঘাতে বিপর্যস্ত ভারতের উড়িষ্যা ও পশ্চিমবঙ্গ। ইয়াসের দাপটে রাজ্য দুটির অনেক এলাকাই বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

আজ বুধবার (২৬ মে) এই বানানো ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর সমালোচনার ঝড় উঠেছে নেটদুনিয়ায়। সমালোচকরা অনেকেই বলছেন, সাক্ষাকারদানকারীরা সাঁতরাচ্ছেন, ঠিক তাদের কাছেই দাঁড়িয়ে কীভাবে সাক্ষাতকার নিচ্ছেন রিপোর্টার। এটা রীতি মতো বাটপারি ছাড়া কিছু নয়।

এরকম পরিস্থিতিতে ভারতীয় ‘নিউজ ১৮’ টিভি চ্যানেলের লাইভ ভিডিওর একটি ক্লিপ ভাইরাল হয়েছে। দিঘা এলাকার ভিডিও ওই ক্লিপে দেখা গেছে, হাঁটু পানিতে সাঁতারের অভিনয় করে মানুষকে সাহায্যের কথা বলছেন সিভিল ডিফেন্সের দুই তরুণ-তরুণী। তারা থৈ পানিতে (আসলে হাঁটুপানি) শুয়ে বলছেন, এভাবেই সাঁতার কেটে কেটে গ্রামের মানুষকে যতটুকু পারবো সাহায্য করবো, মানুষকে উদ্ধার করবো। নিরাপদ স্থানে নেব। এ সময় রিপোর্টারও ক্যামেরার সামনে বলেন, ‘এভাবেই সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা সাঁতার কেটে তারা যাচ্ছেন, মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এক কোটি মানুষ এ দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। প্লাবিত হয়েছে বহু এলাকা, ফসলি জমিতে ঢুকেছে লোনা পানি। পূর্ব মেদিনীপুরের দিঘা, রামনগর, নন্দীগ্রাম এবং দুই চব্বিশ পরগণার হিঙ্গলগঞ্জ, পাথরপ্রতিমা এবং সন্দেশখালিতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ যথেষ্ট বেশি৷

এদিকে স্থলভাগে আছড়ে পড়ার প্রক্রিয়া শেষ হয়ে গেছে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের। ধীরে ধীরে শক্তি হারাচ্ছে এটি। ক্রমেই উড়িষ্যার বালেশ্বর অতিক্রম করছে ইয়াস। ধীরে ধীরে আরও উত্তর উত্তর-পশ্চিমে অগ্রসর হয়ে ঝাড়খণ্ডে প্রবেশ করার কথা রয়েছে। তার পরে আরও শক্তি ক্ষয় করে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে ঘূর্ণিঝড়।