অটোরিকশা থেকে পুলিশ সদস্য ছিটকে পড়ার ঘটনায় চালক কারাগারে

অটোরিকশা হচ্ছে টানা রিকশা বা চক্র রিকশার মোটরযুক্ত সংস্করণ। বেশিরভাগের তিনটি চাকা থাকে এবং কাত হয় না।
ইতিমধ্যে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে সরকার।

গত রবিবার (২৭ জুন) দুপুর ১২টার দিকে নোয়াখালী শহরের মাইজদী টাউন হল মোড়ের প্লাট রোডে ব্যাটারিচালিত একটি অটোরিকশা থেকে ট্রাফিক পুলিশের এক কনস্টেবল ছিটকে পড়ে আহত হয়েছেন। এরপর এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

আজ মঙ্গলবার (২৯ জুন) দুপুরে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাহেদ উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ট্রাফিক পুলিশের ওই কনস্টেবলের নাম পরিতোষ দেওয়ান ও অভিযুক্ত অটোরিকশা চালক হলেন ফারুক হোসেন। কনস্টেবল পরিতোষ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করলে সোমবার (২৮ জুন) দুপুরে ওই মামলায় আদালতের মাধ্যমে ফারুককে কারাগারে পাঠানো হয়।

নোয়াখালী ট্রাফিক বিভাগের টিআই (প্রশাসন) মো. বখতিয়ার উদ্দিন বলেন, লকডাউনে প্রধান সড়কে যাত্রী পরিবহন করায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাটি আটক করে থানায় আনার নির্দেশ দেন এটিএসআই কাজী মো. ইউসুফ। কনস্টেবল প্রিয়তোষ অটোরিকশাটি থানায় নিয়ে যেতে বাহনটিতে উঠলে তাকে নিয়েই পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন চালক। এসময় অটোরিকশা থেকে ছিটকে পড়ে প্রিয়তোষ আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন ফারুককে আটক করে থানায় সোপর্দ করে।