আল্লাহ যাঁকে ভালবাসেন, তাঁকে সম্মান দেনঃ সানা খান

অভিনয় জগত থেকে চিরবিদায় নিয়েছেন সানা খান। ১৫ বছরের সুদীর্ঘ অভিনয় জীবনে ইতি টেনে ইসলাম নির্দেশিত ধর্মীয় জীবনের পথ বেছে নিয়েছেন প্রাক্তন অভিনেত্রী। গত ২১ নভেম্বর সুরতের মুফতি অনস নামক মুসলিম ধর্মগুরুকে বিয়ে করার পরে আক্রমণের শিকার হতে হয়েছিল তাঁকে। নেটাগরিকদের কারও প্রশ্ন ছিল, সানা, আপনি কি ভাল কাউকে পেতেন না? কে‌উ দাবি করেছিলেন, সানা মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছেন ইত্যাদি।

এখনও কটাক্ষ তাঁর পিছু ছাড়েনি। সম্প্রতি তাঁর একটি ছবি দেখে তাঁকে বলা হয়েছে, হিজাবে মুখ লুকোনোর জন্য শিক্ষার কোনও দরকার ছিল না। ছবিতে তিনি একটি কফির কাপ হাতে নিয়ে বসে রয়েছেন। মাথায় তাঁর হিজাব। পরনে কালো বোরখা। ছবিটি তুলেছেন তাঁর স্বামী মুফতি অনস।

ছবির তলায় সানা লি‌খেছেন, মানুষকে ভয় পাওয়ার কিছু হয়নি। আল্লাহ যাঁকে ভালবাসেন, তাঁকে সম্মান দেন, যাঁকে ভালবাসেন না, তাঁকে পাত্তা দেন না।

সানা খান আরও লিখেছেন, আল্লাহের আশীর্বাদেই আমি পড়াশোনা শে‌ষ করেছি। তাঁর মতে, যদি হিজাব পরেও তিনি নিজের ব্যবসাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেন, যদি হিজাব পরেও এত ভাল পরিবারে বিয়ে হতে পারে, এত ভাল স্বামীর সঙ্গ পান তিনি, তবে এই জীবন থেকে আর কিছুই চান না সানা। তিনি মনে করেন, আল্লাহ তাঁকে রক্ষা করেছেন এত দিন ধরে। তাই এখানে পরাজয়ের কোনও প্রশ্নই ওঠে না।