এক দিনেই দুই ক্লাবে গিয়েছিলেন পরীমণি, কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুরের প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ

চিত্র নায়িকা পরীমণি গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুর চালিয়েছিল এমন অভিযোগের প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার পুলিশের গুলশান জোনের ডিসি সুদীপ চক্রবর্তী এ কথা জানান।

গুলশান ডিসি সুদীপ কুমার চক্রবর্তী বলেন, সিসি টিভির ফুটেজের মাধ্যমে বেশ কিছু ঘটনা দেখতে পেয়েছি। বারের ভিতরে যেহেতু সিসি টিভি থাকেনা সেহেতু ওখানে কর্মরতদের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হবে। তাদের কাছ থেকেও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে। নিশ্চয়ই আমরা এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন তৈরি করবো।

এর আগে, ডিবি পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার হাফিজ আখতার বলেছেন, পরীমণির পক্ষে ও বিপক্ষের অভিযোগগুলো খতিয়ে দেখা হয়েছে। ৮ জুন নাকি পরীমণি ক্লাবটিতে ভাঙচুর চালিয়েছেন সেই কারণে জিডিও করা হয়েছে।

জানা গেছে, গত ৮ জুন রাতে উত্তরার বোট ক্লাব ছাড়াও পরীমণি গুলশানের অলকমিউনিটি ক্লাবে যান। সেই ক্লাব কর্তৃপক্ষ একটি ভিডিও দেখিয়ে দাবি করেছে পরীমণি ভাঙচুর করেছে।

এদিকে, পরীমণির করা অভিযোগে এরই মাঝে ব্যবসায়ী নাসিরসহ কয়েকজন পুলিশি রিমান্ডে আছে। এবার ডিবি পুলিশ বলছে পরীমণির বিপক্ষে ওঠা অভিযোগ তদন্ত করা হবে।

নায়িকা পরীমণি ৮ জুন রাতে উত্তরার বোটক্লাবে, ধর্ষণ চেষ্টা ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগে আসামি নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও অমিসহ পাঁচজনকে আসামি করে মামলা করেন। এদের মধ্যে নাসির-অমি’সহ ৫ জন এখন রিমান্ডে রয়েছেন।