ক্ষমতা হারিয়ে ভুল করে প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারেই বসলেন নেতানিয়াহু

দীর্ঘ ১২ বছর প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারেই বসেছিলেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। ভুল করে নতুন প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারেই বসে পড়লেন ক্ষমতা হারানো ইসরাইলের বিরোধী দলীয় নেতা বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।
আজ মঙ্গলবার (১৫ জুন) এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ক’দিন আগেই নির্বাচনে হেরে ১২ বছরের প্রধানমন্ত্রিত্বের পদ থেকে সরতে হয়েছে নেতানিয়াহুকে। কিন্তু সোমবার পার্লামেন্টে গিয়ে তিনি হয়তো এক যুগের অভ্যাস ভুলতে পারেননি। তাই আনমনেই হয়তো প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারে গিয়ে বসে পড়েন। তবে সঙ্গে সঙ্গে তাকে ব্যাপারটা খেয়াল করিয়ে দেওয়া হয় এবং আসন ত্যাগ করে তার জন্য নির্দিষ্ট আসনে বসতে বলা হয়।

নির্বাচনে ১ ভোটে জিতে রবিবারই প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন দক্ষিণপন্থী ইহুদি নেতা নাফতালি বেনেট। একটি ছোট জাতীয়তাবাদী দলের নেতা নাফতালি বেনেটের জন্য ক্ষমতা ধরে রাখাটা কঠিন হবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

বিশ্লেষকরা বলছেন, তাকে রাজনৈতিক ভাবে দক্ষিণপন্থী, বামপন্থী ও মধ্যপন্থী দলগুলো মিলিয়ে আট দলের একটি জগাখিচুড়ি জোট সামলে চলতে হবে। এই আট দলের মধ্যে ছোট্ট একটি আরব গোষ্ঠীও রয়েছে। তাই এই বিপরীত মতাদর্শের দলগুলোর মধ্যে সমন্বয় করে দেশ চালানো বেনেটের জন্য কঠিন হবে।