গ্রাহকের কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়া সেই ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

টাঙ্গাইলের বাসাইলে গ্রাহকের কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় উপজেলার ফুলকী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সারোয়ার হোসেন সবুজকে বহিস্কার করা হয়েছে। জেলা ছাত্রলীগের সাথে পরামর্শ করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক মো. কামরান খান বিপুল।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাসাইল উপজেলার ফুলকী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সবুজের বিরুদ্ধে ডাচ-বাংলা এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠে। এ নিয়ে সংবাদ প্রচারের পরপরই টনক নড়ে কর্তৃপক্ষের। পরে শুক্রবার (২৫ জুন) রাতে এক জরুরী সভায় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতির পদ থেকে সবুজকে বহিস্কার করা হয়। উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক ও যুগ্ম-আহবায়ক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সবুজ এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের গ্রাহকদের টাকা আত্মসাৎ করে দলীয় শৃঙ্খলা ও ছাত্রলীগের ভাবমূর্তি নষ্ট করার কারণে তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হলো।

এ বিষয়ে বাসাইল উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক মোঃ কামরান খান বিপুল বলেন, জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দদের সাথে পরামর্শক্রমে আমরা উক্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। সবুজকে স্থায়ী বহিস্কারের বিষয়ে জেলা কমিটিকে জানানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, চার বছর আগে ডাচ-বাংলা কেন্দ্রীয় ব্যাংক উপজেলার আইসড়া বাজারে এজেন্ট ব্যাংকিং বুথ চালু করে। বাসাইলের ফুলকী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সবুজ ব্যাংকটির এজেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেয়। ব্যাংকিং কার্যক্রমের আড়ালে সবুজ গ্রাহকদের কোটি টাকা আত্মসাৎ করে গা ঢাকা দেয়।